মুন্সীগঞ্জ-২ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থীর গাড়ি বহরে হামলায় আহত : ৪

spমুন্সীগঞ্জ-২ (লৌহজং-টঙ্গীবাড়ি) নির্বাচনী এলাকার স্বতন্ত্র প্রার্থীর গাড়ি বহরে হামলা চালিয়েছে দুর্বৃত্তরা। শুক্রবার বিকেলে মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলার কনকসার ইউনিয়নের ঘোড়দৌর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ সময় পাঁচটি গাড়ি ভাঙচুরসহ চার জন আহত হয় বলে দাবি করেন স্বতন্ত্র প্রার্থী বীর বিক্রম মাহবুব উদ্দিন আহমেদ।

মাহাবুব উদ্দিন আহমেদ জানান, শুক্রবার দুপুরে বিয়ের অনুষ্ঠান শেষে বাড়ি ফেরার পথে ঘোরদৌড় এলাকায় ২০-৩০ জন লোক তার গতিরোধ করে তিনটি মাইক্রোবাস ও দুটি মটরসাইকেল ভাঙচুর করে।

লৌহজং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কালাম জানান, ঘোড়দৌড় সড়ক দিয়ে যাওয়ার পথে মাহবুব উদ্দিনের গাড়ি বহর আওয়ামী লীগ মনোনিত প্রার্থী সাগুফতা ইয়াসমিন এমিলি’র কর্মীদের মিছিলের সামনে পড়ে। এ সময় সামান্য উত্তেজনার সৃষ্টি হলে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। তবে গাড়ি ভাঙচুরের বিষয়টি ভিত্তিহীন বলে দাবি করেন তিনি।

শীর্ষ নিউজ

=====


এসপি মাহবুব উদ্দিনের উপর হামলা

ব.ম শামীম
: মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলার ঘোড়দৌড় ব্রিজের ঢালে স্বতন্ত্র প্রার্থী মাহবুবউদ্দিনের উপর হামলা চালিয়েছে দূর্বত্তরা। শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৪ টায় মুন্সীগঞ্জ-২ আসন (টঙ্গীবাড়ি-লৌহজং) উপজেলার স্বতন্ত্র প্রার্থী বঙ্গবন্ধু পরিষদের ঢাকা মহানগরীর সভাপতি এসপি মাহবুবউদ্দিনের গাড়ি বহরের উপর এ হামলা চালানো হয়।

জানা গেছে, লৌহজং উপজেলার কনকসার গ্রামের বাবু মুন্সীর ছেলের বৌ-ভাত অনুষ্ঠনে যোগদান শেষে টঙ্গীবাড়িতে ফিরছিলেন এসপি মাহবুব ও তার কমী সমর্থকরা। তাদের গাড়ি বহরটি ঘৌড়দৌড় ব্রিজের ঢালে পৌঁছলে লাঠি, সোটা নিয়ে প্রায় ১৪০-১৫০ জন দুর্বৃত্ত তার গাড়ি বহরের উপর হামলা চালায়। এ সময় তার কমী-সমর্থকদের পিটিয়ে আহত করা হয়। এদের মধ্যে আল-আমিনের অবস্থা গুরুতর। স্বতন্ত্র প্রার্থী মাহবুবউদ্দিন আহমেদ, টঙ্গীবাড়ি উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সাধরণ সম্পাদক বাদল মল্লিককেও লাঞ্চিত করে দুর্বৃত্তরা।

===========

মুন্সীগঞ্জে স্বতন্ত্র প্রার্থীর গাড়ী বহরে হামলা, ভাংচুর ও কর্মীদের মারধর

মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলার ঘোড়াদৌর এলাকায় মুন্সীগঞ্জ-২ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থীর গাড়ি বহরে হামলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ সময় ৫টি গাড়ি ভাংচুরসহ ৪ জনের আহত হয়েছে বলে দাবী স্বতন্ত্র প্রার্থী বীর বিক্রম মাহবুব উদ্দিন আহমেদ। শুক্রবার বিকেলে এ ঘটনা ঘটে।

মাহাবুব উদ্দিন আহমেদ স্থানীয় সাংবাদিকদের জানান, শুক্রবার দুপুরে লৌহজং উপজেলার কনকসার গ্রামে একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে যোগ দেন তিনি। বিয়ের অনুষ্ঠান শেষে বাড়ি ফেরার পথে এ ঘটনা ঘটে।

তিনি আরও জানান ঘোরদৌড় এলাকায় ২০-৩০ জন লোক তার গতিরোধ করে ৩টি মাইক্রোবাস ও ২টি মোটরবাইক ভাংচুর করে। এ সময় অন্তত ৪ জন আহত হয় বলে দাবী করেন তিনি। পরে পুলিশকে বিষয়টি জানালে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

লৌহজং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কালাম জানান, ঘোড়দৌর সড়ক দিয়ে যাওয়ার পথে মাহবুব উদ্দিনের গাড়ি বহর আওয়ামী লীগ মনোনিত প্রার্থী সাগুফতা ইয়াসমিন এমিলি’র কর্মীদের মিছিলের সামনে পড়ে। এ সময় সামান্য উত্তেজনার সৃষ্টি হলে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিযন্ত্রনে আনে।

যমুনা নিউজ
=============

এসপি মাহাবুবের গাড়ি বহরে হামলা: ৫টি গাড়ি ভাংচুর, আহত ৪

মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলার কনকসার ইউনিয়নের ঘোরদৌড় এলাকায় শুক্রবার বিকেলে মুন্সীগঞ্জ-২(লৌহজং-টঙ্গীবাড়ি) এর স্বতন্ত্র প্রার্থী মাহাবুব উদ্দিন আহমেদ বীর বিক্রম এর গাড়ি বহরে হামলা চালনোর অভিযোগ পাওয়া গেছে। এসময় তিনটি মাইক্রো ও দুটি মোটরবাইকসহ ৫টি গাড়ি ভাংচুর এবং ৪ জন আহত হয়েছে।

মাহাবুব উদ্দিন আহমেদ(এসপি মাহাবুব) বীর বিক্রম অভিযোগ করে জানান, লৌহজং উপজেলার কনকসার ইউনিয়ন ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদের বাড়িতে একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে অংশ গ্রহণ করার পর বাড়ি ফেরার উদ্যেশ্যে প্রধান রাস্তায় এলে ১০-১২জন লোক জয় বাংলা শ্লোগান দেয় এবং আমাকে দালাল বলে গালিগলাজ করতে থাকে। এসময় আমার সঙ্গে থাকা লোকজনের কয়েকজনকে মারধর করা হয়। পরে ঘোরদৌড় এলাকায় এলে আ’লীগ দলীয় প্রার্থী হুইপ সাগুফতা ইয়াসমীন এমিলি ২০-৩০জন লোক আমার গতিরোধ করে ৩টি গাড়ি ও ২টি মোটরবাইক ভাংচুর করে। এসময় আমদের অন্তত ৪ জন আহত হন। এসময় পুলিশকে খবর দিলে ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে এবং আমরা ফিরে আসি। এ বিষয়টি আমি নির্বাচন কমিশনকে লিখিতভাবে জানাবো।

লৌহজং থানার ওসি আবুল কালাম জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়েছে। তবে তেমন কিছু হয়নি।
হুইপ সাগুফতা ইয়াসমীন এমিলি জানান, প্রতিপক্ষের অভিযোগ মিথ্যা এবং ভিত্তিহীন। এ ধরনের কর্মেকা-ে আমি কখনো জড়িত ছিলাম না এখনও নেই।

মুন্সিগঞ্জ টাইমস