মুন্সীগঞ্জ মুক্ত দিবস উপলক্ষে বর্নাঢ্য র‌্যালী

rally-muktijodda-2১১ ডিসেম্বর মুন্সীগঞ্জ হানদার মুক্ত দিবস উপলক্ষে বুধবার সকাল সাড়ে ৯ টায় বিশার এক বর্নাঢ্য র‌্যালী জেলা শিল্পকলা একাডেমী ভবন থেকে বের হয়। পরে নব-নির্মিত মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমপ্লেক্স ভবনে যেয়ে র‌্যালিটি শেষ হয়। র‌্যালীতে মুক্তিযুদ্ধের বিভিন্ন স্কুল কলেজের ছাত্র-ছাত্রীরা প্রতীকি অভিনয়ের মাধ্যমে মুক্তিযুদ্ধকালীন প্রেক্ষাপট তুলে ধরে।

rally-muktijodda-2
র্যা লীতে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক মো. সাইফুল হাসান বাদল, মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আনিসউজ্জামান আনিস, মুন্সীগঞ্জ পুলিশ সুপার মো. হাবিবুর রহমান, মুন্সীগঞ্জ সরকারি হরগঙ্গা কলেজের অধ্যক্ষ সুখেন চন্দ্র ব্যাণার্জী, এডভোকেট মৃণাল কান্তি দাস, মোহাম্মদ হোসেন বাবুল, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ লুৎফর রহমান, যুগ্ন-সম্পাদক তোফাজ্জল হোসেন, সাবেক যুগ্ন-সম্পাদক আব্দুল হক, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. জামাল হোসেন, জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি এডভোকেট মুজিবুর রহমান, জেলা সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি মতিউল ইসলাম হিরু, জেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক কুতুবউদ্দিন, মুক্তিযোদ্ধা এম এ কাদের মোল্লাসহ সাবেক মুক্তিযোদ্ধা, বিভিন্ন স্কুল কলেজের ছাত্র-ছাত্রীসহ সর্বস্তরের সাধারন মানুষ অংশ নেয়।

মুন্সিগঞ্জ টাইমস
============

মুন্সীগঞ্জে বিজয় র‌্যালি

বুধবার ১১ ডিসেম্বর হানাদার মুক্ত দিবস উপলক্ষ্যে জেলা মুক্তিযোদ্ধা ইউনিট কমান্ড ব্যাপক কর্মসূচি পালন করেন। বুধবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে পুরাতন কাচারিস্থ জেলা শিল্পকলা একাডেমী থেকে বর্ণাঢ্য বিজয় র‌্যালি বের হয়। র‌্যালিটি নবনির্মিত মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমপ্লেক্স ভবনের সামনে এসে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রকৃতিতে পুস্পমাল্য অর্পণ করা হয়। পরে জেলা প্রশাসক মো. সাইফুল হাসান বাদল ২ কোটি ২৫ লাখ টাকা ব্যয়ে নবনির্মিত মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমপ্লেক্স ভবনের উদ্বোধন করেন।

সকাল সাড়ে ১০টার দিকে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সংলগ্ন সড়কে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। জেলা মুক্তিযোদ্ধা ইউনিট কমান্ডের সাবেক কমান্ডার ও মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আনিসউজ্জামান আনিসের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন-জেলা প্রশাসক মো. সাইফুল হাসান বাদল। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন-মুন্সীগঞ্জ পুলিশ সুপার মো. হাবিবুর রহমান, মুন্সীগঞ্জ সরকারি হরগঙ্গা কলেজের অধ্যক্ষ সুখেন চন্দ্র ব্যাণার্জী, যুদ্ধকালীন বিএলএফ’র মুন্সীগঞ্জ তিন থানার প্রধান মোহাম্মদ হোসেন বাবুল, আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির উপ-দপ্তর সম্পাদক এডভোকেট মৃণাল কান্তি দাস, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ লুৎফর রহমান, যুগ্ন-সম্পাদক তোফাজ্জল হোসেন, সাবেক যুগ্ন-সম্পাদক আব্দুল হক, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. জামাল হোসেন, জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি এডভোকেট মুজিবুর রহমান, জেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক কুতুবউদ্দিন, জেলা সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি মতিউল ইসলাম হিরু, জেলা শিল্পকলা একাডেমীর সদস্য সচিব মীর নাসিরউদ্দিন উজ্জল, বীর মুক্তিযোদ্ধা এম এ কাদের মোল্লা, আব্দুর রউফ, শাসসুল হক প্রমুখ।

মুন্সীগঞ্জ বার্তা
====================

মুন্সীগঞ্জ মুক্তদিবসে বর্ণাঢ্য নানা আয়োজন

বুধবার মুন্সীগঞ্জ হানাদার মুক্ত দিবসে স্মরণকালের সবচেয়ে বড় বিজয় র‌্যালী বের হয়। জেলা প্রশাসন ও মুক্তিযোদ্ধা সংসদ আয়োজিত র‌্যালীটি সকালে জেলা শিল্পকলা থেকে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে শহরের সুপার মার্কেট এলাকার নবনির্মিত মুক্তিযোদ্ধা ভবনে এসে শেষ হয়। র‌্যালীতে ৬টি উপজেলার মুক্তিযোদ্ধাসহ সর্বস্তরের মানুষ অংশ নেন। র‌্যালীদের মুক্তিযোদ্ধাদের যুদ্ধ, সুদৃশ্য নৌকা মাঝির ব্যস্ততাসহসহ দেশজ নানা কিছু স্থান পায়। যা ভিন্ন মাত্রা সৃষ্টি করে। র‌্যালী শেষে দুই কোটি টাকা ব্যয়ে নব নির্মিত তৃতীয় ভবনটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার ও জেলা প্রশাসক মো. সাইফুল হাসান বাদল।

পরে জাতীয় সঙ্গীতের সাথে পতাকা উত্তোলনের পর বেলুন ও শান্তির প্রতীক পায়রা উড়িয়ে অনুষ্ঠানোর উদ্বোধন করা হয়। পরে ভবন প্রাঙ্গনের প্রধান সড়কে শুরু হয় আলোচনাসভা। এতে প্রধান আতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক মো. সাইফুল হাসান বাদল। সদ্য বিলুপ্ত কমিটির জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আনিস-উজ-জামানের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য রাখেন পুলিশ সুপার হাবিবুর রহমান, সরকারী হরগঙ্গা কলেজের অধ্যক্ষ সুখেন চন্দ্র ব্যানার্জী, কেন্দ্রী আওয়ামী লীগের উপ-দফতর সম্পাদক অ্যাডভোকেট মৃনাল কান্তি দাস, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ শেখ লুৎফর রহমান, যুগ্ম সম্পাদক মো. তোফজ্জল হোসেন, সাবেক পৌর মেয়র এ্যাডভোকেট মুজিবুর রহমান, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মো. হোসেন বাবুল, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক দুই ডেপুটি কমান্ডার আব্দুর রব মোল্লা প্রমুখ। এছাড়া মুক্ত দিবস উপলক্ষে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা ও জেলা শিল্পকলা একাডেমী প্রাঙ্গনে শুরু হয়েছে গ্রাম বাংলার বিজয় মেলা।

স্বদেশ
====