সাদেক হোসেন খোকা গ্রেফতার

khokaশীর্ষ কযেকজন নেতার পর এবার গ্রেফতার হলেন বিএনপির ঢাকা মহানগরীর আহবায়ক সাদেক হোসেন খোকা বেশ কিছুদিন ধরে অপ্রকাশ্যে থাকা বিরোধী দলের এই নেতাকে বুধবার রাতে রাজধানীর উত্তরার একটি বাড়ি থেকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তুলে নিয়ে যায় বলে তার সহকারী মনিরুল ইসলাম জানিয়েছেন।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির তিন সদস্য মওদুদ আহমদ, এম কে আনোয়ার, রফিকুল ইসলাম মিয়া, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুল আউয়াল মিন্টু ও চেয়ারপারসনের সহকারী শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাস গ্রেপ্তার হয়ে কারাগারে রয়েছেন।

এরপর গ্রেফতার হন বিএনপি’র স্থায়ী কমিটির সদস্য আসম হান্নান শাহ ।

তাদের গ্রেপ্তারের পর অবরোধে গাড়ি পোড়ানোর মামলায় যুগ্মমহাসচিব রুহুল কবির রিজভীকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। ওই মামলায় আসামি করার পর আত্মগোপন করেন কেন্দ্রীয় সহসভাপতি খোকা।

মনিরুল ইসলাম বলেন, “স্যার (খোকা) উত্তরার ৫ সেক্টরের একটি বাসায় ছিলেন। রাত পৌনে ১০টার দিকে ওই বাসা ঘেরাও করে স্যারকে নিয়ে যায় তারা।”

খোকাকে গ্রেপ্তারের বিষয়ে তাৎক্ষণিকভাবে পুলিশের কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি। গত ৩০ নভেম্বর রিজভীকে তুলে নেয়ার প্রায় ১০ ঘণ্টা পর তাকে গ্রেপ্তারের কথা নিশ্চিত করেছিল গোয়েন্দা পুলিশ।

অবরোধে শাহবাগে গাড়ি পোড়ানোর পাশাপাশি মালিবাগ ও মাতুয়াইলে বাসে আগুন দেয়ার মামলায়ও খোকাকে আসামি করে পুলিশ।

শাহবাগ ও মালিবাগের মামলার আসামি বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসও আত্মগোপনে রয়েছেন।

শীর্ষনেতাদের অনুপস্থিতিতে বিএনপির যুগ্মমহাসচিব সালাহউদ্দিন আহমেদ বর্তমানে দলের মুখপাত্রের দায়িত্ব পালন করছেন। মামলা মাথায় নিয়ে তিনিও অজ্ঞাত স্থান থেকে বক্তৃতা ও বিবৃতি পাঠাচ্ছেন।

নির্দলীয় সরকারের দাবিতে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত টানা অবরোধের পর আরো কঠোর কর্মসূচি দেয়ার হুমকি দিয়ে বিবৃতি পাঠানোর পরই খোকা গ্রেপ্তার হলেন।

নির্বাচনের তফসিল প্রত্যাখ্যান করে বিরোধী দলের ডাকে অবরোধে সংঘাতে এই পর্যন্ত ৪০ জনের বেশি মানুষের প্রাণহানির প্রেক্ষাপটে খোকাকে গ্রেপ্তারের মাধ্যমে সরকারের কঠোর অবস্থানেরই প্রকাশ ঘটল।

খোকা গ্রেপ্তার হওয়ার ঘণ্টাখানেক আগেই আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সংসদের বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী পদে শেখ হাসিনাকে রেখেই তফসিল অনুযায়ী নির্বাচনের পক্ষে অবস্থান নেয়া হয়।

সরকারি দলের ‘সন্ত্রাসীদের’ মোকাবেলায় সম্প্রতি বিরোধী দলের কর্মীদের দা-কুড়াল নিয়ে প্রস্তুত থাকার আহ্বান জানিয়ে আলোচনার জন্ম দিয়েছিলেন ঢাকার সাবেক মেয়র খোকা।

যমুনা নিউজ