যে গান কোথাও বাজে না

hasanFakriমুক্তিযোদ্ধা কোথায় তুমি/ দেখো এসে জন্মভূমি/তোমার বুকে দাঁড়িয়ে কারা করছে রাজত্ব/এই জন্যে কি লক্ষ শহীদ দিযেছে রক্ত? এটি একটি চলচ্চিত্রের গান।


গীতিকার হাসান ফকরী, সুরকার ও শিল্পী আজাদ রহমান। চলচ্চিত্রটির নাম, চাঁদাবাজ। পরিচালক কাজী হায়াৎ। ১৯৯৩ সালে বিএনপি শাসনামলের স্বর্ণযুগে ছবিটি মুক্তি পায়, এবং পরের বছর জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ঘোষিত হলে এই গানটির জন্য শ্রেষ্ঠ গীতিকারের পুরস্কার লাভ করেন হাসান ফকরী। শ্রেষ্ঠ সুরকার ও শ্রেষ্ঠ শিল্পীর পুরস্কার ও জিতে নেন আজাদ রহমান। কিন্তু পুরস্কার ঘোষণার সময় শ্রেষ্ঠ গানের মুখ বাজানোর নিয়ম থাকলেও সেদিন এই গান অনিবার্য কারণে বাজানো হয়নি। জাতীয় সম্প্রচার মাধ্যমেও এই গান বাজানো হয়নি আজতক। চলচ্চিত্রটি যারা দেখেছেন, শুধুমাত্র তারা জানেন যে এই গানের চলচ্চিত্রায়নে বঙ্গবন্ধু ও বীরশ্রেষ্ঠদের ছবি ব্যবহৃত হযয়ছে। তোমার বুকে দাঁড়িয়ে কারা করছে রাজত্ব এই প্রশ্ন রাখার কারণেই নাকি তৎকালীন ক্ষমতাসীন মহল গানটির উপর অলিখিত নিষেধা জারি করেছিল। বলা বাহুল্য, এই নিষেধা আজো বলবৎ আছে। কিন্তু কেনো? গানের বানীগুলো পড়লেই বোঝা যায় সমসাময়িক বিভিন্ন জাতীয় সমস্যার প্রতি ইঙ্গীত দেয়া হয়েছে প্রতিটি পংক্তিতে। এমনকি বীর বাঙালি, বীর শ্রেষ্ঠদের আরেকবার জেগে ওঠার আহবানও রাখা হয়েছে। গীতিকবি হাসান ফকরীর এই অনন্য প্রয়াসকে জাতীয় সম্প্রচার কর্তৃপক্ষ কেনো সাধারণ মানুষকে শুনতে দিচ্ছে না তা বোধগম্য নয়। আমরা আশা করছি এই প্রতিবেদন প্রকাশের পর মুহুর্তেই গানটি বেজে উঠবে বেতার এবং টেলিভিশনে।

হাসান ফকরী এই গানটির জন্য শ্রেষ্ঠ গীতিকার হিসেবে লাভ করেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ১৯৯৩ শ্রেষ্ঠ গীতিকারের পুরস্কার লাভ করেন হাসান ফকরী।

শ্রেষ্ঠ গীতিকারের পুরস্কার লাভ করেন হাসান ফকরী।

মুক্তিযোদ্ধা কোথায় তুমি
hasanFakri

মুক্তিযোদ্ধা কোথায় তুমি
দেখো এসে জন্মভূমি
তোমার বুকে দাঁড়িয়ে কারা করছে রাজত্ব
এই জন্য কি লক্ষ শহীদ দিয়েছে রক্ত।
দেশটা যেন মগের মুল্লুক
খাচ্ছে ক’জন লুটে
ক্ষুধার জ্বালায় কেঁদে মানুষ
মরছে মাথা কুটে
সন্ত্রাসী বোমাবাজী
নিত্য পথে-ঘাটে (২)
কথায় কথায় চলে গুলি
স্বাধীনতা মুখের বুলি
চাঁদাবাজের কাছে মানুষ
করছে দাসত্ব।
দিনে দিনে বাড়ছে শোষণ
বাড়ছে অপরাধ
এই কি ছিল মুক্তিযোদ্বা
বীরের স্বপ্ন-সাধ
কেঁদে মরে মানবতা
নেইকো প্রতিবাদ (২)
বীর বাঙ্গালী বীরশ্রেষ্ঠ
আরেকটি বার জেগে ওঠো
ওরা যে সব দিচ্ছে মুছে
জাতির বীরত্ব ।

শিল্পী ও সুরকার – আজাদ রহমান
চলচ্চিত্র – চাঁদাবাজ

লেখক – মোঃ আলমগীর খন্দকার