শ্রীনগরে প্রতিবন্ধি যুবতীর ইজ্জতের মূল্য ষাট হাজার টাকা!

rapeআরিফ হোসেন: শ্রীনগরে সালিশ মিমাংসায় এক প্রতিবন্ধি যুবতীর ইজ্জতের মূল্য ষাট হাজার টাকা নির্ধারন করেছে সালিশদাররা। শনিবার দুপুরে উপজেলার রাঢ়িখাল ইউনিয়ন পরিষদে এ সালিশ মিমাংসার আয়োজন করা হয়। এতে রাঢ়িখাল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানে হারুন অর রশিদ, ইউপি সদস্য আ: রব, আ: আউয়াল সহ অর্ধ শতাধিক নারী পুরুষ উপস্থিত ছিলেন।


এলাকাবাসী জানায়, এক সপ্তাহ আগে রাঢ়িখাল গ্রামের প্রতিবন্ধি যুবতী (২৫) কে একই গ্রামের নুরুল হকের পুত্র জাহাঙ্গীর (১৮) তার দুই প্রভাবশালী সহযোগীকে নিয়ে ধর্ষন করে। এতে সে অসুস্থ হয়ে পরলে তাকে চিকিৎসার জন্য ঢাকার একটি ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়। ঘটনাটি জানাজানি হয়ে গেলে প্রভাবশালীরা তা ধামাচাপা দেওয়ার জন্য চেয়ারম্যানের সহায়তায় সালিশ মিমাংসার আয়োজন করে।

এতে অপরাধীরা তাদের অপরাধ স্বীকার করলে সালিশদাররা প্রথমে এক লাখ টাকা জরিমানা ধাযর্ করে। পরে জাহাঙ্গীরের চাচাদের আপত্তিতে তা ষাট হাজারে নামিয়ে আনা হয়। প্রতিবন্ধি যুবতীর বোন বিনা আক্তার জানান, সালিশে আমাদের উপর সিদ্ধান্ত চাপিয়ে দেওয়া হয়েছে। চেয়ারম্যান হারুন অর রশিদ সালিশের বিষয়টি স্বীকার জানান, ছেলের বয়স কম। তাছাড়া ষাট হাজার টাকার বেশী দেওয়ার সামর্থও তার নেই। যদি বাদী পক্ষ রায় না মানে তাহলে আমার আর কিছু করার নেই।


এব্যাপারে শ্রীনগর থানার অফিসার ইনচার্জ মাহবুবুর রহমান বলেন,ধর্ষনের ঘটনায় সালিশ করার বিধান নেই। এ বিষয়ে খোজ নিয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।