সংসার ছেড়ে পালিয়ে বিপাকে শাপলা, অবশেষে প্রেমিকের বিরুদ্ধে মামলা

aaaMunshigonjসামসুল হুদা হিটু: প্রেমের টানে স্বামীর ঘর ছেড়ে প্রেমিকের হাত ধরে পালিয়ে আসার ৬ মাসের মাথায় প্রেমিকের বিরুদ্ধে মামলা রুজু করেছেন প্রেমিকা। সোমবার রাতে মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া থানায় এ মামলা রুজু হলেও মঙ্গলবার বিকেল পর্যন্ত প্রেমিক গ্রেফতার হয়নি। তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলে পুলিশ সূত্রে জানা গেছে। এদিকে এ ঘটনা গজারিয়া উপজেলায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে।

স্থাণীয় সূত্রে জানা গেছে, নড়াইল জেলার কালিয়া উপজেলার ফিরোজ শেখের বিবাহিত মেয়ে শাপলা আক্তার (২৫) পরকীয়া প্রেমের টানে স্বামীর ঘর ছেড়ে পালিয়ে চলে আসে মুন্সীগঞ্জের গজারিয়ায়। প্রেমিক সোহাগ তাকে স্থাণীয় পুরাচক বাউশিয়া গ্রামে বন্ধু সুজনের বাড়িতে আশ্রয় নেয়। এখানে থেকেই শাপলা আক্তার তার স্বামীকে তালাক নোটিশ পাঠায়।


সূত্র জানায়, এর মধ্যে প্রেমিক ও গজারিয়ার পুড়াচক বাউশিয়া গ্রামের হাবু মোল্লার ছেলে সোহাগ বিয়ে করতে অস্বীকৃতি জানালে প্রেমিকা শাপলা আক্তার বিপাকে পড়ে যান। এছাড়া এ অবস্থায় স্বামীর ঘরে ফিরে যাওয়ারও সুযোগ নেই তার। এতে স্থাণীয়দের সহযোগিতায় বিষয়টি গজারিয়া উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তাকে বিষয়টি জানালে সোমবার সন্ধায় গজারিয়া থানা পুলিশ পুড়াচক বাউশিয়া গ্রামের সুজনের বাড়ি থেকে শাপলা আক্তারকে উদ্ধার করে পুলিশ। পরে রাতেই শাপলা আক্তার বাদী হয়ে প্রেমিক সোহাগ, বন্ধু সুজনসহ অপর সহযোগীদের আসামী করে মামলা রুজু করেন। অন্যদিকে শাপলা আক্তারকে উদ্ধারের পর সোমবার থেকে প্রেমিক সোহাগ ও তার পিতা হাবু মোল্লাসহ সহযোগীরা পলাতক রয়েছে।


গজারিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মামুনুর রশীদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, মামলা রুজু হওয়ার পর থেকে আসামীদের গ্রেফতার করতে পুলিশ মাঠে নেমেছে। বর্তমানে শাপলা আক্তার পুলিশের হেফাজতে রয়েছে।

ওয়ান নিউজ