গজারিয়ায় লরি ও মাইক্রোবাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে ২ শিশু

raমুন্সীগঞ্জের গজারিয়ায় মালবাহী লরি ও মাইক্রোবাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে ঘটনাস্থলেই ২ শিশু নিহত ও ৪ জন আহত হয়েছে। হতাহত সবাই মাইক্রোবাসের যাত্রী। নিহতরা হচ্ছে- মো. হানিফ (৮) ও আল-আমিন (১০)। প্রয়াত হানিফের চাচা আব্দলি হামিদ (৩৯), সেলিম (৪০), ওয়াহিদদুজ্জামান ওহিদ (৪৫) ও মো. ইব্রাহিম (২২)-কে গজারিয়া উপজেলার ভবেরচর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। রোববার দুপুর সোয়া ১২ টার দিকে ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কের উপজেলার বালুয়াকান্দি এলাকায় মর্নিং সান রেষ্টুরেন্টের সামনে এ দুঘর্টনাটি ঘটে। নিহতদের মধ্যে আল-আমিনের বাড়ি কুমিল্লার তিতাস থানার রোগনাথপুর ও অপর নিহত হানিফের বাড়ি একই জেলার মুরাদনগর থানার লোহাড়গড়া গ্রামে। লাশ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।


গজারিয়া উপজেলার ভবেরচর হাইওয়ে ফাঁড়ির এএসআই মো. মহিউদ্দিন জানান, যাত্রীবোঝাই করে একটি মাইক্রোবাস কুমিল্লা থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা দেয়।পথিমধ্যে গজারিয়া উপজেলার বালুয়াকান্দি মর্নিং সান রেষ্টুরেন্টের কাছে বিপরীতমুখী চট্টগ্রামগামী মালবোঝাই একটি লরির সঙ্গে ওই মাইক্রোবাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ বাঁধে। এতে ঘটনাস্থলেই ২ শিশু মারা যায়। পুলিশ ঘাতক লরিটি আটক করতে পারেনি।

ঢাকা নিউজ এজেন্সি
============

গজারিয়ায় লরি-মাইক্রোবাস সংঘর্ষে ২ শিশু নিহত

মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া উপজেলার বালুয়াকান্দি এলাকায় লরি-মাইক্রেবাস সংঘর্ষে হানিফ (৮) ও আলামিন (৯) নামে দু’টি শিশু নিহত হয়েছে। এসময় আহত হয়েছে মৃত শিশু হানিফের চাচাসহ চারজন।

রোববার দুপুর সোয়া ১২টার দিকে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন, মৃত হানিফের চাচা হামিদ (৩৮), সেলিম (৪০), অহিদুল (৪৫) ও ইব্রাহিম (২২)। তাদের ভবেরচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।


হাইওয়ে পুলিশের ভবেরচর ফাঁড়ির সার্জেন্ট মো. সাইফুল ইসলাম জানান, একটি মাইক্রোবাসে করে তারা সবাই কুমিল্লা থেকে ঢাকা যাচ্ছিল। পথে বালুয়াকান্দি এলাকার মর্নিং সান রেস্টুরেন্টের কাছে মালবাহী একটি লরির সঙ্গে মাইক্রোবাসটির সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই মাইক্রোবাসে থাকা ওই দুই শিশুর মৃত্যু হয়।

এ সময় ওই গাড়ির আরও চার যাত্রী আহত হন। নিহত দুই শিশু পরষ্পর মামাতো-ফুফাতো ভাই বলে তিনি জানান।

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর