জামাতার হামলায় শ্বশুর-শাশুড়ি আহত

aaaMunshigonjনেশা সেবনে বাধা দেওয়ায় মুন্সীগঞ্জের টঙ্গিবাড়ীতে জামাতার হামলায় শ্বশুর ও শাশুড়িসহ পাঁচজন আহত হয়েছেন। মঙ্গলবার সকাল ৮টার দিকে উপজেলার আব্দুল্লাহপুর ইউনিয়নের সালিমাবাদ বিন্দুসার গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

আহত শ্বশুর আলাউদ্দিন (৬৫), শাশুড়ি আয়াতুন্নেসা (৫৫), হামলাকারীর স্ত্রী লিপি বেগম (৩৫), সমন্ধি আলমগীর হোসেন (৩৫) ও নুর ইসলামকে (৩৮) মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।


আহত শ্বশুর আলাউদ্দিন বাংলানিউজকে জানান, মেয়ে জামাতা নুরে আলম নেশাগ্রস্ত অবস্থায় বাড়ি ফিরে প্রায়ই তার মেয়ে লিপিকে মারধর করে। এ কারণে নেশা সেবনে বাধা দেওয়ায় আলম ক্ষিপ্ত হয়ে মঙ্গলবার সকালে ছয়-সাতজনকে সঙ্গে নিয়ে শ্বশুর বাড়িতে হামলা চালিয়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে তাদের জখম করে।

টঙ্গিবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এস এ খালেক মঙ্গলবার দুপুরে বাংলানিউজকে জানান, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে।

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর
=============

মুন্সীগঞ্জে স্বামী পক্ষের হামলায় স্ত্রী পক্ষের মা-বাবাসহ আহত ৫

মুন্সীগঞ্জের টঙ্গীবাড়িতে স্বামীর বিরুদ্ধে মামলার করার কারণে স্ত্রী পক্ষের উপর হামলা হয়েছে। এ সময় একই পবিরাবের অন্তত ৫জন আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে আলাউদ্দিন (৬২)-কে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। অপর আহত আলাউদ্দিনের স্ত্রী আয়াতুন্নেছা (৫৭), মেয়ে লিপি আক্তার (২২), ছেলে আলমগীর আলম (৩৫), নূরুল ইসলাম (৪৫)-কে মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে টঙ্গীবাড়ি উপজেলার আব্দুল্লাহপুর ইউনিয়নের সলিমাবাদ-বিন্দুসার গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।


টঙ্গীবাড়ি থানার ওসি (তদন্ত) মো. খলিলুর রহমান জানান, গত ৮-৯ মাস আগে সলিমাবাদ-বিন্দুসার গ্রামের আব্দুর রশীদের ছেলে নূরে আলমের সঙ্গে একই এলাকার আলাউদ্দিনের মেয়ে লিপি আক্তারের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই যৌতুকের দাবিতে মাদকাসক্ত ও মাদক বিক্রেতা স্বামী নূরে আলম লিপির উপর শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করে আসছে। এরইমধ্যে লিপি ৭ মাসের অন্ত:সত্বা হয়ে পড়লেও নির্যাতন আরো বেড়ে যায়। এতে গত কয়েক দিন আগে লিপি তার বাবার বাড়ি চলে গিয়ে সোমবার স্বামী নূরে আলম ও তার স্বজনদের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা করেন। এ মামলার জের ধরে মঙ্গলবার সকাল ৭টার দিকে স্বামী নূরে আলমের নেতৃত্বে লিপির পরিবারের সদস্যদের উপর হামলা চালানো হয়। এতে লিপি, তার মা-বাবা ও ভাইসহ পরিবারের ৫জন গুরুতর আহত হয়। এ ব্যাপারে লিপির ভাই নূরুল ইসলাম বাদী হয়ে টঙ্গীবাড়ি থানায় মামলা দায়ের করার প্রস্তুতি নিয়েছেন।

ঢাকা নিউজ এজেন্সি