শ্রীনগরে শিশু ছাত্রীকে ধর্ষনের অভিযোগে সালিশ মিমাংসায় ধর্ষককে বেত্রাঘাত!

aaaMunshigonjআরিফ হোসেন: শ্রীনগরে শিশু শ্রেনীর এক ছাত্রীকে ধর্ষনের অভিযোগে সালিশ মিমাংসায় ধর্ষককে বেত্রাঘাত করে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। গত শনিবার রাতে উপজেলার ফুলকুচি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এলাকাবাসী জানায়, ফুলকুচি গ্রামের দিন মজুর নাসিরের প্রথম শ্রেনীতে পড়–য়া কন্যা (৬) পাশের বাড়ির দুই সন্তানের জনক সেলিম ওরফে কসাই সেলিম (৩৫) গত বৃহস্পতিবার বিকালে তার ঘরে নিয়ে ধর্ষন করে। এ সময় স্থানীয় লোকজন তাকে হাতে নাতে ধরে ফেলে এবং উত্তম-মধ্যম দেয়।


এঘটনায় ঐদিন সন্ধ্যায় সেলিম তাকে মারধরের অভিযোগ এনে উল্টো শ্রীনগর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করে। ধর্ষিতার বাবা নাসির জানান, আমার মেয়েটি মানসিক ভাবে ভেঙ্গে পরেছে। মাতব্বররা সালিশ করে বিচার করে দিয়েছে। গত শনিবার রাতে স্থানীয় ইউপি সদস্য নুরুল ইসলাম মেম্বার,কমল,শিহিদুল,মাহবুল, রাজ্জাক সহ ১০/১২ জন সালিশ মিমাংসায় বসে। নুরুল ইসলাম মেম্বার জানায়, সালিশে সেলিম অভিযোগ স্বীকার করায় তাকে ৭/৮টি বেত্রাঘাত করে ছেড়ে দেওয়া হয়।

শ্রীনগর থানার এএসআই আলাউদ্দিন জানান, অভিযোগের তদন্ত করতে গিয়ে ধর্ষনের বিষয়টি জানতে পেরেছেন। এব্যাপারে শ্রীনগর থানার অফিসার ইনচার্জ মাহবুবুর রহমান বলেন শিশুটির পক্ষ থেকে অভিযোগ দেওয় হলে মামলা রেকর্ড করে ব্যাবস্থা নেওয়া হবে।