গজারিয়ায় স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাকে লাঠিপেটা করেছে একই দলের কর্মীরা

aaaMunshigonjমুন্সীগঞ্জের গজারিয়ায় ভবেরচর ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা মামুন সিকদারকে (৩০) লাঠিপেটা করেছে স্থানীয় আ’লীগ কর্মীরা। রবিবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে। পরে রক্তাক্ত জখম অবস্থায় স্বেচছাসেবক লীগের যুগ্ন-আহবায়ক মামুনকে উদ্ধার করে পুলিশ। উপজেলার ভবেরচর ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারন সম্পাদক শাহ আলমের সমর্থিত দলীয় কর্মীরা এ ঘটনায় জড়িত বলে জানা গেছে।

আহত মামুন সিকদার স্থানীয় গিয়াসউদ্দিন সিকদারের ছেলে ও দৈনিক বর্তমানের গজারিয়া সংবাদদাতা আমিরুল ইসলাম নয়নের ছোট ভাই বলে জানা গেছে।


আহত মামুনের ভাই আমিরুল ইসলাম নয়ন জানান, রবিবার দুপুর ১ টার দিকে গজারিয়া উপজেলার ভবেরচর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি লোকমান হোসেনের সঙ্গে ভবেরচর গ্রাম থেকে রাজধানী ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা দেন স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা মামুন। তারা ভিটিকান্দি গ্রামে পৌঁছতে স্থানীয় আ’লীগ কর্মী ওবায়দুল ও কাশেমের নেতৃত্বে দলীয় কর্মীরা স্বেচ্ছাসবেক লীগ নেতা মামুনকে ধারালো অস্ত্রের মুখে তুলে নিয়ে যায়। এ সময় প্রান ভয়ে দৌড়ে পালিয়ে যান ভবেরচর ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি লোকমান হোসেন। পরে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা মামুনকে এলোপাতাড়ি লাঠিপেটা করে আনারপুরা গ্রামের সড়কের উপর ফেলে রেখে যায়। খবর পেয়ে পুলিশ দুপুর ২ টার দিকে সেখান থেকে তাকে উদ্ধার করে।

গজারিয়া থানার এসআই মনিরুজ্জামান জানান, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা মামুনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ভবেরচর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ দাখিল করা হয়েছে। তবে এ ঘটনায় বরিবার বিকেল পর্যন্ত হামলাকারীদের গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি।

ওয়ান নিউজ