সিরাজদিখানে আইন-শৃঙ্খলার চরম অবনতি ও মাদকে সয়লাব

মুন্সীগঞ্জ জেলার সিরাজদিখান উপজেলার সর্বত্র আইন-শৃঙ্খলার চরম অবনতি ঘটেছে। পাশাপাশি উপজেলার অধিকাংশ এলাকাই মাদকের ছড়াছড়ি। চুরি ছিনতাই লেগেই আছে। বিশেষ করে থানার বর্তমান ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল বাসার এই থানায় যোগ দেয়ার পর থেকেই এই মাত্রা আরো বৃদ্বি পেয়েছে বলে এলাকাবাসীর অভিযোগ রয়েছে। থানায় প্রায় প্রতিদিনই ধরা পরছে মাদক। কিন্তু থানা পুলিশের চাহিদা মিটাতে পারলে থানা থেকেই রহস্যজনক ছাড়া পেয়ে যাচ্ছে মাদক ব্যবসায়ীরা। আবার অনেক নিরীহ জনসাধারনকে পুলিশ থানায় গ্রেফতার করে নিয়ে আশে। পরে পুলিশের চাহিদা মিটাতে নাপারলে পুলিশের কাছে রক্ষিত গাজা দিয়ে মামলা সাজিয়ে কোর্টে চালান করা হয় বলে ভুক্ত-ভোগিরা অভিযোগ করেন। ভুক্তভোগী নিমতলী এলাকার আনিছ ও বাসাইল এলাকার মো:এমদান জানান, তাদেরকে কোন অভিযোগ ছাড়াই গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসে।


পরে পুলিশ মোটা অংকের টাকার চাহিদা মিটাতে নাপারায় অ¯্র ও গাজার মামলায় কোর্টে চালান দেওয়া হয় বলে অভিযোগ করেন। আবার অনেক চাদাবাজ সন্ত্রাসীকে পুলিশ অশ্রসহ গ্রেফতার করেছে, কিন্তু পুলিশের চাহিদা পূরন করে থানা থেকেই ছাড়া পেয়েছে এ রকম অনেক অভিযোগ পাওয়া গেছে। বিশেষ করে এসব কারনে বর্তমান ওসি আবুল বাসারের ভয়ে এলাকার নিরীহ মানুষ আতংকে দিন কাটাচ্ছে। অবিলম্বে এ ওসির অপসারন হলে সাধারন মানুষ শান্তি পাবে বলে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অনেকে জানান।


উল্লেখ্য, বর্তমান ওসি আবুল বাসার সিরাজদিখান থানায় যোগদানের পূর্বে মুন্সীগঞ্জ সদর থানায় থাকাকালীন তার বিরুদ্বে বিভিন্ন অভিযোগ বিভিন্ন দৈনিক পত্রিকায় ছাপা হয়েছে। বর্তমানে সিরাজদিখান থানায় থাকা অবস্থায়ও বিভিন্ন অভিযোগ দৈনিক পত্রিকায় ছাপা হচ্ছে।

বাংলাপোষ্ট

One Response

Write a Comment»
  1. Ai aasath police karmokartar ovilambe amader thana theke oposaron chai.