১৭ আগস্ট মুন্সীগঞ্জে কেন বোমা বিস্ফোরিত হয়নি

২০০৫ সালের ১৭ আগস্ট একযোগে দেশের ৬৩ জেলায় সিরিজ বোমা হামলা হলেও একমাত্র জেলা মুন্সীগঞ্জে সেদিন কোনো বোমা বিস্ফোরিত হয়নি। ঘটনার আট বছর অতিবাহিত হলেও শুধুমাত্র এই জেলায় কেন সেদিন বোমাবাজি হয়নি তা এখনও রহস্যজনক।

তবে আলোচিত ১৭ আগস্ট সিরিজ বোমা হামলার তিনদিন আগে থেকে ছোট এই জেলায় পুলিশ ছিল তৎপর। পাশাপাশি অভিযান পরিচালনা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। ফলে ধরা পড়ে যাওয়ার আশঙ্কায় সেদিন জেএমবি সদস্যরা মুন্সীগঞ্জে বোমাবাজি করেনি বলে মতামত ব্যক্ত করেছিলেন তৎকালীন জেলা প্রশাসন, গোয়েন্দা শাখার পুলিশ ও জেলার বিভিন্ন থানা পুলিশের কর্মকর্তারা।


নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক জেলা প্রশাসনের এক কর্মকর্তা বলেছেন, ১৭ আগস্ট সিরিজ বোমা হামলার কয়েকদিন আগে থেকেই মুন্সীগঞ্জ শহরে মনসা মেলা হচ্ছিল। এ কারণে জেলায় পুলিশের তৎপরতা বাড়ানো হয়। এছাড়া সে সময় ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান অব্যাহত ছিল। ফলে বোমা হামলাকারীরা কোনো সুযোগ পায়নি। সে সময় ওই কর্মকর্তার বক্তব্যের সঙ্গে গোয়েন্দা সংস্থার এক কর্মকর্তাও একমত পোষণ করেছিলেন।

এছাড়া মুন্সীগঞ্জ সদর থানার তৎকালীন ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বলেছিলেন, মুন্সীগঞ্জ জেলা শহরটি ছোট। এখানে বোমা বিস্ফোরণ করলে ধরা পড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা বেশি। সে কারণেই হয়তো জেএমবির হামলাকারীরা মুন্সীগঞ্জকে তালিকার বাইরে রেখেছিল।


উল্লেখ্য, ২০০৫ সালের ১৭ আগস্ট জামায়তুল মুজাহিদিন বাংলাদেশ (জেএমবি) দেশের ৬৩টি জেলায় একযোগে বোমা হামলা চালায়। ঘটনার দিন একমাত্র মুন্সীগঞ্জ জেলায় জেএমবির সদস্যরা বোমা বিস্ফোরণ ঘটায়নি।

ফলে সিরিজ বোমা হামলার সঙ্গে মুন্সীগঞ্জ জেলাও আলোচনায় চলে আসে। শনিবার (১৭ আগস্ট) সেই সিরিজ বোমা হামলার আট বছর পূর্তি। তাই আবারও আলোচনায় মুন্সীগঞ্জ।

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর