কারাগারের হাজতির মৃত্যু

মুন্সীগঞ্জ জেলা কারাগারের মো. বছির মিয়া (৩০) নামে এক হাজতির মৃত্যু হয়েছে। সোমবার দুপুরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। আসামি বছির মিয়া শহরের বাগমামুদালী পাড়ার মৃত জয়নাল আবেদীনের ছেলে এবং আওয়ামী লীগের কর্মী ছিলেন।

মুন্সীগঞ্জ জেল সুপার আনোয়ার করিম সোমবার রাত ৮টার দিকে হাজতী বছিরের মৃত্যুর সত্যতা বাংলানিউজকে নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, মোবাইল ফোন চুরির মামলায় বছির হাজতে ছিলেন। রোববার আকস্মিক অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার দুপুরে তার মৃত্যু হয়।

নিহত বছিরের বড় ভাই চা বিক্রেতা মো: জহির জানান, বছিরের লাশ মুন্সীগঞ্জ নিয়ে আসার প্রস্তুতি চলছে।

উল্লেখ্য, মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের অভ্যন্তরে এক রোগীর মোবাইল ফোন সেট চুরির ঘটনায় গত ১৬ জুলাই দিবাগত রাতে সদর থানা পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারের পরদিন মোবাইল ফোন চুরির মামলায় ধৃত বছিরকে আদালতে পাঠানো হলে আদালত তাকে জেল হাজতে পাঠায়।

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর
=================

মুন্সীগঞ্জ হাজতি আসামির মৃত্যু

মুন্সীগঞ্জে বসির মিয়া (৩০) নামে এক হাজতির মৃত্যু হয়েছে। নিহত বসির আওয়ামী লীগ সমর্থক ছিলেন। শহরের বাগমামুদালী পাড়ার প্রয়াত জয়নাল আবেদীনের ছেলে বসির। সোমবার দুপুর ১২টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। গত ১৬ই জুলাই রাতে একটি মোবাইল ফোন সেট চুরির মামলায় সদর থানার পুলিশ তাকে আটক করে। রোববার দুপুরে জেলা কারাগারে বসির অসুস্থ্য হয়ে পড়লে তাকে মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে আনা হয়। বিকেল ৩টার দিকে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করেন। পরে গতকাল সোমবার দুপুর ১২ টার দিকে বসির মারা যায় বলে তার ভাই চা বিক্রেতা মো. জহির নিশ্চিত করেছেন। কাল মঙ্গলবার নিহত বসিরের মরদেহ ঢামেক থেকে মুন্সীগঞ্জে আনা হবে বলে জহির জানান।


ঢাকা নিউজ এজেন্সি