মুন্সীগঞ্জে সাংবাদিককে হুমকি : এসআই প্রত্যাহার

মুন্সীগঞ্জে পুলিশের সঙ্গে মাদক বিক্রেতাদের সখ্য থাকার অভিযোগে মুক্তারপুর নৌ-পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই মিজানুর রহমানকে সরিয়ে নেয়া হয়েছে। শুক্রবার তাকে ফাঁড়ি থেকে জেলা ডিবিতে সরিয়ে নেয়া হয়।

সূত্র মতে, চর মুক্তারপুরের ক্রাউন সিমেন্ট এলাকার মাদক বিক্রেতা নাজির ইসলাম, নূর ইসলাম, সাইক্কা, মাদক বিক্রেতা স্বপনের স্ত্রী ফাতেমা আক্তার ফাতু ও শাহ সিমেন্ট এলাকার ফারুকসহ মাদক বিক্রেতাদের সঙ্গে পুলিশ ফাঁড়ির এসআই মিজানুর রহমানের দহরম সম্পর্ক গড়ে উঠে। ওইসব মাদক বিক্রেতাদের বিরুদ্ধে সংবাদ সংগ্রহ করায় স্থানীয় সংবাদিক মো. জাফর মিয়াকে নারায়ণগঞ্জের ডিবি পুলিশের পরিচয় দিয়ে হুমকি দেয়। এ বিষয়ে সংবাদকর্মী জাফর মিয়া শুক্রবার দুপুরে মুন্সীগঞ্জ সদর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন।


এ ব্যাপারে এসআই মিজানুর রহমান, তার বিরুদ্ধে অভিযোগ অসত্য ও মিথ্যা বলে দাবি করেন।

জাস্ট নিউজ
============

মুন্সীগঞ্জে মুক্তারপুর নৌ-ফাঁড়ির ইনচার্জ প্রত্যাহার

ধলেশ্বরী ও মেঘনা নদীতে নৌ-চাঁদাবাজ ও জলদস্যুদের সঙ্গে সখ্যতা গড়ে উঠার অভিযোগে মুন্সীগঞ্জ শহরের উপকন্ঠ মুক্তারপুর নৌ-ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই মিজানুর রহমানকে অন্যত্র প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে তাকে প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়েছে বলে সত্যতা নিশ্চিত করেছেন জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাকির হোসেন মজুমদার। ওই এসআই মাত্র ৫ মাস আগে মুক্তারপুর নৌ-ফাঁড়িতে ইনচার্জ হিসেবে যোগদান করেন।

এসআই মিজানুর রহমান নৌ-ফাঁড়িতে যোগদান করার পর থেকে শহর সংলগ্ন ধলেশ্বরী ও মেঘনাবক্ষে নৌ-চাঁদাবাজ ও জলদস্যুদের আনাগোনা বেড়েছে। নৌ-পথে বাড়ছে নানা অপরাধ। কিছুতেই নৌ-ফাঁড়ি পুলিশ অপরাধ কর্মকান্ড নিয়ন্ত্রনে আনতে পারছে না। এ গুলোসহ নানা কারনে বৃহস্পতিবার রাতে মুক্তারপুর নৌ-ফাঁড়ির ইনচার্জকে প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়েছে।

ওয়ান নিউজ