সিরাজদিখানে মার্কেট মালিক দোকানদার সংঘর্ষে ১ জন গুলিবিদ্ধসহ আহত ৫

ব.ম শামীম: মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানে শুক্রবার সকালে মার্কেট মালিক ও দোকানদারের সংঘর্ষে ১ দোকানদার গুলিবিদ্ধ সহ কমপক্ষে ৫ জন আহত হয়েছে। এ ঘটনায় গুলিবিদ্ধ কামাল সেখে (৩০) এর আপ্তিয় স্বজন ও মার্কেটের অন্যান্য দোকানদাররা মার্কেট মালিক দেলোয়ার মোড়লকে প্রায় ৪ ঘন্টা মার্কেটের ভিতর অবরুদ্ধ করে রাখে। এ সময় মার্কেটে কেনাকাটা করতে আসা শত শত ক্রেতা মার্কেটের ভিতর আটকে পরে। পরে পুলিশ ও র‌্যাব ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে বিকেল ৩ টায় অবরুদ্ধ মার্কেট মালিক দেলোয়ার মোড়ল(৫০) ও ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী মামুন, জব্বার, জুবায়ের কে গ্রেফতার করে সিরাজদিখান থানায় নিয়ে আসলে পরিস্থিতি শান্ত হয়ে আসে ।

জানাগেছে, উপজেলার নিমতলায় মা মনি প্লাজা মার্কেটের ভারাটিয়া দোকানদার কামাল সেখ দির্ঘদিন যাবৎ ইভা বিউটি পার্লার নামে একটি পার্লার দোকান পরিচালনা করে আসছে। এ দোকানে পানির লাইন আনাকে কেন্দ্র দির্ঘ দিন যাবৎ দেলোয়ার ও কামালের সাথে বিবাদ চলে আসছে।

গতকাল শুক্রবার সকালে কামাল পানির লাইন আনতে গেলে দেলোয়ার তাতে বাধা দেয়ে। এ সময় তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে সংঘর্ষ বেধে যায়। সংঘর্ষের এক পর্যায়ে দেলোয়ার ও তার ভারাটিয় সন্ত্রাসী মামুন, জব্বার, জুবায়েরসহ আরো কয়েক জন পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী কামালকে দাড়ালো চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে ও পায়ে দুইটি গুলি করে গুরুতর আহত করে। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে ঢাকা ম্যাডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ সময় কামালের স্ত্রী নার্গিস ও দোকান কর্মচারী পূর্নিমাসহ কমপক্ষে ৫ জন আহত হয়েছে।

===================

সিরাজদিখানে ব্যবসায়ীকে গুলি, গ্রেফতার ৭

মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানে নিমতলা এলাকায় লাইসেন্সকৃত অস্ত্রের গুলিতে কামাল হোসেন নামে এক পার্লার ব্যবসায়ী আহত হয়েছেন।

শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে স্থানীয় মামুনি মার্কেটের মালিক দেলোয়ার হোসেনসহ ৭ জনকে গ্রেফতার করেছে।এ সময় লাইসেন্সকৃত একটি শর্টগান ও একটি রিভলবার জব্দ করে পুলিশ।

আটকরা হলেন-দেলোয়ার হোসেন (৫৪), মামুন বেপারী (৩২), মাসুদ মোড়ল (৩০) সেলিম (৩৮), জব্বার শেখ (৩০), শামিম (৩৬), শাহআলম (৩২)।


সিরাজদিখান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবুল বাসার বাংলানিউজকে জানান, উপজেলার নিমতলা এলাকায় মামুনি মার্কেটের ভাড়াটিয়া পার্লার ব্যবসায়ী কামাল হোসেন দোকানের সংস্কার কাজ করছিলেন।এ নিয়ে মার্কেটের মালিক দেলোয়ার হোসেনের সঙ্গে ভাড়াটিয়া ব্যবসায়ী কামাল হোসেনের তর্কবিতর্ক হয়।

এক পর্যায়ে মামুনি মার্কেটের মালিক দেলোয়ার হোসেন তার লোকজন নিয়ে লাইসেন্সকৃত অস্ত্র দিয়ে কামালকে গুলি করে।এতে তিনি পায়ে গুলিবিদ্ধ হন।এরপরই পুলিশ সাতজনকে গ্রেফতার করে।

ওসি আরও জানান, মার্কেটের মালিক দেলোয়ার হোসেনের কাছে থাকা লাইসেন্সকৃত ২টি অস্ত্র(শর্টগান ও রিভলবার) জব্দ করা হয়।এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর
===============

সিরাজদিখানে মার্কেট মালিকের গুলিতে ভাড়াটিয়া গুলিবিদ্ধ, অস্ত্র ও গুলিসহ আটক ৬

মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানে মার্কেট মালিকের গুলিতে গুলিবিদ্ধ হয়েছেন ভাড়াটিয়া কামাল হোসেন (২৯)। তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকা মিটফোর্ড হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় একটি শর্টগান, শর্টগানের খোসা, একটি রিভলবার, রিভলবারের ১৫ রাউন্ড গুলি ও ৫টি গুলির খোসা উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ সময় মার্কেট মালিক দেলোয়ার হোসেন মোড়ল (৫৫), তার দুই ছেলে মামুন মোড়ল (৩৫),মাসুদ মোড়ল (২৪), চাচাতো ভাই আব্দুল জব্বার মোড়ল (৩৫), মেয়ের জামাই সেলিম শেখ (৩৮) ও শামীম আহম্মেদ (৩৫)-কে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে। শুক্রবার দুপুর ১২ টার দিকে সিরাজদিখানের নিমতলাস্থ মা-মনি মার্কেটে এ ঘটনা ঘটে।

সিরাজদিখান থানার ওসি (প্রশাসন) মো. আবুল বাসার জানান, মা-মনি মাকের্টের মালিক দেলোয়ার হোসেনের কাছ থেকে কামাল হোসেন মার্কেটের পজিশন ক্রয় করে বিউটি পার্লারের দোকান বসায়। শুক্রবার দুপরে বিউটি পার্লারের দোকানে টাইলস লাগানো নিয়ে মালিকের সঙ্গে তর্কবির্তক দেখা দেয়। এ সময় মালিক দেলোয়ার হোসেন কামালের দুই পা লক্ষ্য করে এলোপাতাড়ি গুলে ছুঁড়ে। এ সময় ৪টি গুলি তার দুই পায়ে বিদ্ধ হয়। তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকা মিটফোর্ড হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মার্কেট মালিক, তার ছেলে, মেয়ের জামাই, ভাইসহ ৬ জনকে অস্ত্র ও গোলাবারুদসহ গ্রেপ্তার করে। তবে, উদ্ধারকৃত অস্ত্র ও গোলাবারুদ লাইসেন্স করা বলে ওসি দাবি করেন। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করার প্রস্ততি চলছে।

ঢাকা নিউজ এজেন্সি