মুন্সীগঞ্জে পদ্মায় পানি বৃদ্ধি পাচ্ছে

শ্রীনগর ও লৌহজং উপজেলার পৃথক ২ টি পয়েন্টে প্রতিদিন পদ্মায় পানি বৃদ্ধি পাচ্ছে। গত ২৪ ঘন্টায় লৌহজং উপজেলার মাওয়া পয়েন্টে পদ্মাবক্ষে ১০ সেন্টিমিটার ও শ্রীনগর উপজেলার ভাগ্যকুল পয়েন্টে ১১ সেন্টিমিটার পানি বৃদ্ধি পেয়েছে। বিপদসীমার ৩৮ সেন্টিমিটার নীচে পদ্মায় পানি প্রবাহিত হচ্ছে।

পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকলে সপ্তাহ খানেকের মধ্যে মুন্সীগঞ্জে পদ্মায় বিপদসীমা অতিক্রম করতে পারে বলে আশংকা প্রকাশ করা হয়েছে।


বিআইডব্লিউটিএ’র উপ-সহকারী প্রকৌশলী তরিকুল ইসলাম যমুনা নিউজকে জানান, শনিবার জেলার শ্রীনগর উপজেলার ভাগ্যকুল পয়েন্টে পদ্মায় ৫ দশমিক ৫৫ সেন্টিমিটার পানি বৃদ্ধি পায়। ১ দিন পর রোববার পানি বৃদ্ধি পেয়ে দাঁড়ায় ৫ দশমিক ৬০। আর সোমবার সন্ধ্যায় আরো ৬ সেন্টিমিটার পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় পদ্মায় ৫ দশমিক ৬৬ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে পানি প্রবাহিত হচ্ছে।

একই ভাবে জেলার লৌহজং উপজেলার মাওয়ায় শনিবার ৫ দশমিক ১৫ সেন্টিমিটার, রোববার ৫ দশমিক ২০ সেন্টিমিটার ও সোমবার সন্ধ্যা পর্যন্ত ৫ দশমিক ২৫ সেন্টিমিটার পানি বৃদ্ধি পায় পদ্মায়।

এদিকে, প্রতিদিন ৫ সেন্টিমিটার করে পদ্মায় পানি বৃদ্ধি পাচ্ছে। উজান থেকে প্রবল বেগে ধেয়ে আসছে পানি। ফুসে উঠছে পদ্মা-জেলার শ্রীনগর উপজেলার ভাগ্যকুল পানি উন্নয়ন বোর্ড সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। সূত্রটি জানায়, উজান থেকে ধেয়ে আসা পানির সঙ্গে রয়েছে পলি মাটি।


উজানের পানিতে পদ্মার দু’কুল প্লাবিত হচ্ছে। পানি প্রবাহ ঠিক থাকলে এক সপ্তাহের মধ্যে পদ্মার পানি বিপদসীমা অতিক্রম করতে পারে বলে পাউবোর একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র জানিয়েছে।

যমুনা নিউজ