মুন্সীগঞ্জ মর্গে দুই সপ্তাহ ধরে পড়ে আছে চার লাশ

ময়নাতদন্ত শেষ হয়েছে প্রায় দুই সপ্তাহ আগে। তবু এখনো মর্গেই পরে আছে নারীসহ চারজন অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তির লাশ। লাশের স্বজনের সন্ধান না পাওয়ায় তা দাফনও করা যাচ্ছেনা।

তবে দুই/একদিনের মধ্যে মুন্সীগঞ্জ পৌরসভা এ বেওয়ারিশ লাশগুলো দাফনের ব্যবস্থা নেবে বলে বৃহস্পতিবার জানিয়েছেন মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎস ‍কর্মকর্তা (আরএমও) ডা. এহসানুল করিম।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, পরিচয় ও স্বজন সনাক্ত না হওয়ায় দুই সপ্তাহ ধরে ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হওয়ার পরও মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে চারটি লাশ মর্গের ভেতরে হোগলা দিয়ে পেচাঁনো অবস্থায় পড়ে রয়েছে।

এর ফলে লাশগুলোতে পচন ধরায় দুর্গন্ধ ছড়িয়ে হাসপাতালের পরিবেশ দূষিত হয়ে উঠছে।হাসপাতালের চিকিৎসাধীন থাকা রোগীরাও এ দুর্গন্ধের ফলে আরও অসুস্থ হয়ে পড়ছে বলে জানা গেছে।

এদিকে গত ২৪ জুন “দফানের অভাবে মর্গে পড়ে আছে ৪ লাশ” শিরোনামে বাংলানিউজে সংবাদ প্রচারিত হওয়ার পর মুন্সীগঞ্জের শহরের মাঠপাড়া এলাকার সন্তান ও অঞ্জু নামের এক জাপান প্রবাসী আর্থিক সহায়তার করার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন।

মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের আরএমও ডা. এহসানুল করিম জানান, লাশগুলো বেওয়ারিশ, দাফনের জন্য মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার মেয়রকে চিঠি দেওয়া হয়েছে। কিন্তু এখনও তারা দাফনের কোনো উদ্যোগ না নেওয়ায় মর্গেই পড়ে আছে।

এ প্রসঙ্গে মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা গাজী জসিম জানান, বেওয়ারিশ লাশ হিসেবে প্রতিটি লাশ দাফন করতে দুই হাজার টাকা খরচ হয়। বুধবার মর্গের ডোম মুন্নার কাছে দুই হাজার টাকা দেওয়া হয়েছে। অপর তিনটি লাশ দাফনের জন্য টাকা দেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

তিনি জাপান প্রবাসীর আর্থিক সহায়তা প্রসঙ্গে জানান, জাপান প্রবাসী আর্থিক সহায়তা করতে চাইলে পৌর কর্তৃপক্ষ নিতে ইচ্ছুক। তিনি পৌরসভার ব্যাংক অ্যাকাউন্টে এ অর্থ পাঠাতে পারেন।

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর

2 Responses

Write a Comment»
  1. Boss , Thank you / Pourp Mayor er sathe zogazog hoyeche

    1. Good job Moni bai…Thanks a million.