ঈদের পর আন্দোলনের ডাক বি. চৌধুরীর

bcবিকল্পধারার প্রেসিডেন্ট সাবেক রাষ্ট্রপতি অধ্যাপক একিউএম বদরুদ্দোজা চৌধুরী আসন্ন রমজান মাসে বিরোধী দলীয় ঐক্য প্রক্রিয়া শেষ করে ঈদের পর রাজপথে তত্ত্বাবধায়ক সরকার আদায়ের আন্দোলন শুরুর জন্য সকল বিরোধী রাজনৈতিক দলের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

তিনি শুক্রবার বিকেলে রাজধানীর মতিঝিলে ঢাকা জেলা ক্রীড়া সংস্থা মিলনায়তনে বিকল্প যুবধারার পরিচিতি অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ আহ্বান জানান।

ওবায়দুর রহমান মৃধার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন, বিকল্পধারার মহাসচিব মেজর (অব.) আবদুল মান্নান, যুগ্ম মহাসচিব মাহী বি. চৌধুরী, ড. নূরুল আমিন বেপারী, বিএনপির সহ সভাপতি আবদুল্লাহ আল নোমান, যুবদলের সভাপতি সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, ইঞ্জিনিয়ার মোহাম্মদ ইউসুফ, মাহবুব আলী, অধ্যাপক আসাদুজ্জামান বাচ্চু প্রমুখ।

বি. চৌধুরী বলেন, সমস্ত বিরোধী দলকে আসন্ন রমজানের মধ্যে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। ঈদের পর তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দাবি আদায়ের জন্য রাজপথে আন্দোলন শুরু করা হবে।


তিনি বলেন, ভবিষ্যতে দেশে এমন একটি সরকার প্রতিষ্ঠা করা হবে, যারা সন্ত্রাস ও দুর্নীতি করবে না। আগামী নির্বাচনে যারা সংসদ সদস্য হিসেবে মনোনয়ন নেবেন তাদের মধ্যে মুসলমানদের পবিত্র কোরআন এবং অন্যান্য ধর্মের প্রার্থীদের স্ব স্ব ধর্মগ্রন্থ ছুঁয়ে শপথ নিতে হবে যে, তারা নির্বাচিত হলে সন্ত্রাস ও দুর্নীতি করবেন না।

বি. চৌধুরী আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, তার সরকারের অধীনে নির্বাচন ছাড়া অন্য কোনো পদ্ধতিতে সংসদ নির্বাচন হবে না। তত্ত্বাবধায়ক সরকারের জন্য আন্দোলন চললে কোনো নির্বাচন দেওয়া হবে না। প্রধানমন্ত্রী যাই বলুন না কেন, দেশে নির্বাচন হবে এবং তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনেই হতে হবে।

তিনি বলেন, “আমি নিশ্চিত করে বলতে পারি, প্রধানমন্ত্রী তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচনের ঘোষণা দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গে দেশ থেকে রাজনৈতিক অস্থিরতা, অশান্তি ও বিশৃঙ্খলা দূর হয়ে যাবে এবং সব রাজনৈতিক দল নির্বাচনমুখী হবে।”

বি. চৌধুরী বলেন, প্রধানমন্ত্রীর উচিত হবে, সরকার ও বিরোধী দলের সাংবিধানিক অধিকারকে সম্মান করা এবং অবিলম্বে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন ঘোষণা করে মহানায়কের ভুমিকায় অবতীর্ণ হওয়া।


আবদুল্লাহ আল নোমান বলেন, সকল বিরোধী রাজনৈতিক দলকে ন্যূনতম কর্মসূচির ভিত্তিতে গোলটেবিলে বসে তত্ত্বাবধায়ক সরকার আদায়ের আন্দোলন শুরু করতে হবে।

যুবদলের সভাপতি সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল বলেন, তারা ক্ষমতায় গেলে সন্ত্রাস না করার জন্য যুবদল ও ছাত্রদল কর্মীদের নিয়ন্ত্রণ করা হবে।

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর