শ্রীনগরে জমিজমা নিয়ে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে নিহত ১

মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগরে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে ১জন নিহত ও ১০ জন আহত হয়েছেন। শুক্রবার সকাল ১০ দিকে উপজেলার ষোলঘর গোয়ালপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এলাকাবাসী জানায়, পূর্ব শক্রতার জের ধরে বিবাদমান মোকাজ্জল ও ফজল গ্রুপের মধ্যে এ সংঘর্ষ বাধে। এতে ফজল গ্রুপের আক্কাস (৩৫), জলিল (৪০), আয়নাল (৩৮) আব্দুর রব (৩৪), বাবু (২৫) ফজল (৪৫) ও মোকাজ্জল গ্রুপের মোকাজ্জল (৪০), বিল্লাল (৩৫)সহ অন্তত ১০ জন আহত হয়। আহতদের মধ্যে ৬ জনকে ঢাকা মিটফোর্ড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে দুপুর ১২ টার দিকে আক্কাস (৩৫) নামে একজনের মৃত্যু হয়।


জলিল ও আব্দুর রব নামে দুজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে তাদের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে। তাদেরকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। অপরদিকে আক্কাসের মৃত্যুর খবর শুনে এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পরে এবং এলাকাবাসী আক্কাসের হত্যাকারীদের বিচার দাবি করে মিছিল নিয়ে শ্রীনগর থানা চত্ত্বরে জড়ো হয়ে শ্লোগান দিতে থাকে। এসময় শ্রীনগর থানার অফিসার ইনচার্জ জসিমউদ্দিন আসামিদের দ্রুত গ্রেপ্তারের আশ্বাষ দিলে তারা শান্ত হন। নিহত আক্কাসের বড় ভাই মো. ফজল অভিযোগ করেন, হামলার পর মোকাজ্জল,বিল্লাল ও দুলাল পায়ে হেঁটে শ্রীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এসে ভর্তি হন। সেখানে কর্তব্যরত পুলিশ তাদেরকে আটক করেনি।


তিনি আরো জানান, তার ভাই আক্কাস ও জলিল সকালের দিকে ষোলঘর বাজারে যাওয়ার পথে মোকাজ্জল,বিল্লাল ও দুলাল তাদের বাহিনীর ১৫-২০ জনকে নিয়ে ধারালো অস্ত্র নিয়ে আক্কাস ও জলিলের উপর আক্রমন করে। এসময় তাদের চিৎকারে আয়নাল, রব ও বাবু এগিয়ে গেলে তাদেরকেও কুপিয়ে জখম করা হয়। পরে এলাকাবাসী এগিয়ে আসলে মোকাজ্জল তার বাহিনী নিয়ে পালিয়ে যায়। শ্রীনগর থানার অফিসার ইনচার্জ জসিমউদ্দিন জানান, পারিবারিক জমিজমা নিয়ে এ ঘটনা ঘটে। শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত থানায় কোন মামলা হয়নি। তবে, মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে বলে তিনি জানান। এ ঘটনায় কেউ গ্রেপ্তার হয়নি।

dhakanewsagency