সজল খালেদের বাবা দশ দিন পর ছেলের মৃত্যুর খবর শুনে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন

sajalfatherআরিফ হোসেন: এভারেস্ট জয় করে নেমে আসার সময় সজল খালেদের মৃত্যুর দশদিন পর মঙ্গলবার রাত আট টার দিকে বাবা আ: আজিজকে (৮২) ছেলের মৃত্যুর খবরটি জানানো হয়। প্রিয় সন্তানের মৃত্যুর খবর শুনে তিনি কান্নায় ভেঙ্গে পরেন। এতদিন জানতেন ছেলে এভারেষ্ট জয় করে দেশে ফিরছে হঠাৎ মৃত্যুর খবর শুনে তিনি শোকে পাথর হয়ে যান। সজল খালেদের চাচা তোফাজ্জল হোসেন সাকিদার জানান, গ্রামের বাড়িতে মঙ্গলবার সকালে ঘুম থেকে জেগেই তিনি সজল খালেদের সাথে ফোনে কথা বলার জন্য ব্যকুল হয়ে উঠেন।


পরে সজল খালেদের এভারেষ্ট জয়ের খবর সংবলিত পত্রিকা দেখতে চান। বেলা এগারটার দিকে তিনি টেলিভিশনের সংবাদ দেখতে চাইলে পরিবারের সদস্যরা বিপাকে পড়ে যান। এসময় গ্রামের বাড়ির স্বজনদের লুকোচুরির বিষয়টি আচ করতে পেরে তিনি বারবার সজল খালেদের সাথে কথা বলার বায়না ধরেন। এক পর্যায়ে তিনি অস্থির হয়ে উঠলে ঢাকার বাসায় খবর দেওয়া হয়। বিকালের দিকে সজল খালেদের দুই ভাই শাখাওয়াত হোসেন ও শাহাদাৎ হোসেন তাদের গ্রামের বাড়ি শ্রীনগর উপজেলার হাসাড় গাও এসে বাবা আ: আজিজকে ঢাকা মগবাজারের বাসায় নিয়ে যায়।

সেখানে রাত আটটার দিকে পরিবারের সদস্যরা আ: আজিজকে তার প্রিয় সন্তান সজল খালেদের মৃত্যুর সংবাদটি জানান। এসময় তিনি সহ পরিবারের সদস্যরা কান্নায় ভেঙ্গে পরেন। বার বার তিনি সজল খালেদের মরদেহ দেখার জন্য ব্যকুল হয়ে উঠেন এবং নানা রকম স্মৃতি চারণ করতে করতে অসুস্থ হয়ে পরেন। সজল খালেদের ভাই শাহাদাৎ হোসেন জানান, রাত এগারটার দিকে তার বাবা বেশী অসুস্থ্য হয়ে পরলে ডাক্তার এসে তাকে চেতনা নাশক দিয়ে ঘুমপারিয়ে রাখেন। গতকাল বুধবার সকালে ঘুম থেকে জেগেই তিনি আবার সজল খালেদের জন্য অস্থির হয়ে পরেন। তিনি কিছুতেই সজল খালেদের মৃত্যুর বিষয়টি মেনে নিতে পারছেন না।