মুন্সীগঞ্জ থেকে হেফাজতে ইসলামের ৫ হাজার কর্মী পায়ে হেটে ঢাকা

ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কে মুন্সীগঞ্জের সিরাজদীখান উপজেলার কুচিয়ামোড়া কলেজ মাঠ থেকে অবরোধে ও পায়ে হেটে ঢাকা ছুটে গেছে হেফাজতের ইসলামের ৫ হাজার কর্মী। প্রশিক্ষিত ২’শ হেফাজত কর্মীর তত্বাবধানে ও মধুপুরের পীর মাওলানা আব্দুল হামিদের নেতৃত্বে হেফাজতের কর্মীরা সকাল ৮ টার দিকে কুচিয়ামোড়া এলাকা সংলগ্ন ধলেশ্বরী-১ ও ২ নম্বর সেতুর উপর দিয়ে পায়ে হেটে রওনা দেন।

পরে হেফাজতের ৫ হাজার নেতাকর্মী ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কের পৃথক ২ টি স্থানে অবস্থান নিয়ে ঢাকা অবরোধ করে। ঢাকার কেরানীগঞ্জের বাবু বাজার ও পোস্তগোলা সেতু এলাকায় হেফাজতের নেতাকর্মীরা অবস্থান নিয়েছেন। জেলার সিরাজদীখান উপজেলা হেফাজতে ইসলামের আহবায়ক মাওলানা ওবায়দুল্লাহ কাশেমী জানিয়েছেন, মুন্সীগঞ্জ ও ঢাকার ৮ উপজেলার হেফাজতে ইসলামের ৫ সহস্রাধিক নেতাকর্মী রোববার ভোরে কুচিয়ামোড়া কলেজ মাঠে ফজরের নামাজ আদায় করেন।

এরপর হেফাজতে ইসলামের কর্মীরা এখানে সমবেত হয়ে ঢাকা অবরোধ কর্মসূচীতে অংশ নিতে সকাল ৮ টার দিকে পায়ে হেটে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা দেন। ঢাকা ও মুন্সীগঞ্জের ৮ উপজেলা হেফাজতে ইসলামের সভাপতি মধুপুরের পীর মাওলানা আব্দুল হামিদের নেতৃত্ব দেন হেফাজত কর্মীদের।

এদিকে, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া উপজেলার হোগলাকান্দি মাদ্রাসা প্রাঙ্গন থেকে শতাধিক নেতাকর্মী ঢাকা অবরোধের উদ্দেশ্যে পায়ে হেটেই রওনা দেন।

রোববার বেলা ৯ টার দিকে গজারিয়া উপজেলার হোগলাকান্দি নামক স্থানে হেফাজতে ইসলামের কর্মী সমবেত হলে পুলিশ বাঁধা প্রদান করে। এ সময় পুলিশের সঙ্গে হেফাজতের কর্মীদের কথা কাটাকাটি হয়। পরে পুলিশের বাঁধা দেওয়া শিথিল হলে বেলা ১০ টার দিকে শতাধিক নেতাকর্মী ঢাকার উদ্দেশ্যে পায়ে হেটে রওনা দেয়।

যমুনা নিউজ