বিনা অপরাধে ৫ রিকশা-শ্রমিকের ৩২ ঘন্টা হাজতবাস !

শেখ মো.রতন: এক যুবকের হাত ধরে কলেজ শিাথীর পলায়নের ঘটনায় পুলিশের হাতে আটক হয়ে বিনা অপরাধে মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগর থানায় ৩২ ঘন্টা হাজতবাস খেটেছেন ৫ রিকশা শ্রমিক। ওই ৫ শ্রমিক সোমবার দিবাগত রাত ৯ টার দিকে থানা হাজত থেকে ছাড়া পেয়েছেন। এর আগে টানা ৩২ ঘন্টা ধরে মুক্তির পাওয়ার অপোমান থাকেন তারা। শ্রীনগর উপজেলার বেঁজগাঁও এলাকা থেকে রোববার দুপুরে রিকশা শ্রমিক আবুল (৪৮), সাবু মিয়া (৪৪), তারা মিয়া (৬০), মাহবুবুল (৩৮) ও খোরশেসকে (৩৬) আটক করে পুলিশ।


স্থানীয় প্রভাবশাী আওয়ামীলীগ নেতার মতার দাপটের কারনেই ৫ শ্রমিককে আটক করা হয় ও ঘন্টার পর ঘন্টা ধরে থানা হাজতবাস খাটতে হয়েছে দাবী করেন ভুক্তভোগী রিকশা শ্রমিক আবুল। তিনি জানান, বেঁজগাঁও এলাকার আ’লীগ নেতা মাহবুব মিয়ার কলেজ পড়–য়া মেয়ে একই এলাকার বাইক চালক মোশারফের হাত ধরে গত শনিবার দুপুরে পালিয়ে যায়। বাইক চালক মোশারফ শ্রীনগরের বেঁজগাঁও এলাকার তারা মিয়ার ছেলে।

প্রত্যদর্শীরা জানান, রোববার দুপুর ১ টার দিকে তাদের আটক করা হয়। পরে ৫ শ্রমিককে থানা হেফাজতে আটকে রেখে পালিয়ে যাওয়া আ’লীগ নেতার মেয়েকে ফিরিয়ে দেওয়ার জন্য চাপাচাপি করে পুলিশ। ৩২ ঘন্টা পর সোমবার রাতে তাদের ছেড়ে দেয় পুলিশ।

৫ শ্রমিককে আটক করার সত্যতা নিশ্চিত করে শ্রীনগর থানার ওসি (তদন্ত) আবু বকর সিদ্দিক বলেন- কলেজ শিার্থীকে অপহরন করার অভিযোগে শিার্থীর বাবা আ’লীগ নেতা মাহবুব শ্রীনগর থানায় অভিযোগ দায়ের করলে সন্দেহভাজন হিসেবে ওই ৫ শ্রমিককে আটক করা হয়েছিল। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ শেষে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

টাইমস্ আই বেঙ্গলী