বর্ষণে মাওয়া নতুন ফেরীঘাটের সংযোগ সড়কের বেহাল দশা

২ টি ঘাটে যানবাহন লোড- আনলোড বিঘিœত
মৌসুমী বায়ুর প্রভাবে মুন্সীগঞ্জের লৌহজংয়ে গত দ’ুদিন অবিরাম বর্ষণ হওয়ায় মাওয়া নতুন ফেরীঘাটের সংযোগ সড়কের বেহাল দশা বিরাজ করছে। এতে করে মাওয়া চৌরাস্তা সংলগ্ন স্থানান্তরিত নতুন ফেরীঘাটের ২টি ফেরীঘাটে দফায় দফায় ফেরীতে যানবাহন লোড আনলোড বন্ধ রাখে সংশ্লিষ্ট বিআইডব্লিউটিসি কর্তৃপক্ষ। ফলে ফেরী পারাপার বিঘিœত হয়ে গতকাল বুধবার সকাল থেকে মাওয়া ঘাটে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়। এ সময় চরম দুর্ভোগে পড়েন দক্ষিণ–পশ্চিমাঞ্চলের বিপুল যাত্রীসাধারণ।

সংশ্লিষ্ট একাধিক সূত্রে জানা যায়, টানা বর্ষণের কারণে মাওয়া ২ নং নতুন ফেরীঘাটের ফেরী পন্টুনের র‌্যামের মুখে বিআইডব্লিউটি এর সংযোগ সড়কের বালুর ওপরে নতুন করে এবং এ্যাপ্রোচ এ সড়কটির বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টির পানি জমে দেবে গেছে। মঙ্গলবার সন্ধ্যার পর থেকেই ২ নং ঘাটটি যানবাহন চলাচলের জন্য অচল হয়ে পড়লে এ ঘাটে দফায় দফায় যানবাহন পারাপার বন্ধ রাখা হয়। একইসাথে মাওয়া ঋষিবাড়ী ১ নং ঘাটিিটও ২ নং ঘাটের সংযোগ সড়কের সাথে সংযুক্ত থাকায় এ ঘাটে শুধুমাত্র ছোট যানবাহন সীমিতাকারে দেয়া হচ্ছে। এদিকে বৃষ্টির কারণে মাওয়া লঞ্চ টার্মিনালের মুখে সড়ক ও জনপদের সড়কেও গর্ত – খানাখন্দ সৃষ্টি হওয়ায় যানবাহন ঢাকা – মাওয়া মহাসড়কে যানবাহন চলাচল দফায় দফায় বিঘিœত হচ্ছে। তবে বিআইডব্লিউটিএর প্রকৌশল বিভাগ তা তাৎক্ষণিকভাবে ভ্যাটস দিয়ে ঠিক করে দিলেও হালকা যানবাহন চলাচলেও বৃষ্টির পানিতে নরম মাটি দেবে যাচ্ছে বলে


বিআইডব্লিউটিসির ম্যানেজার (বাণিজ্য) সিরাজুল হক জানিয়েছেন। তিনি আরো জানান, রাস্তার মেরামতের কারণে নতুন ১ নং ও ২নং ঘাট সাময়িকভাবে বন্ধ রাখা হয়েছে।

বিআইডব্লিউটিসির সহকারী মহা–ব্যবস্থাপক আশিকুজ্জামান জানান, ঘাটগুলোতে হেভি ওয়েট যানবাহন দেওয়া যাচ্ছে না। কিছু কিছু ছোট হালকা যানবাহন দেয়া হচ্ছে। এ ব্যাপারে বিআইডব্লিউটিএর নির্বাহী প্রকৌশলী সাজেদুর রহমানের মোবাইলে বারবার চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি। তবে তার অধীনস্থ এক কর্মকর্তা মনির হোসেন জানিয়েছেন, এগুলো তেমন বড় ধরণের কোন সমস্যা নয়। তাৎক্ষণিকভাবে আমরা ভ্যাটস দিয়ে দেবে যাওয়া অংশগু“লো ঠিক করে দিচ্ছি ।

এদিকেযানজট প্রসঙ্গে হাইওয়ে পুলিশের সার্জেন্ট সাহাদত হোসেন জানান, সকালের দিকে মহাসড়কের খানবাড়ী পর্যন্ত ট্রাকের দীর্ঘ লাইন দেখা দিলেও পরবর্তীতে তা নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়েছে। বৃষ্টির কারণে ফেরীঘাটের রাস্তার সমস্যায় ঘাট সঙ্কটে কিছুটা যানজট সৃষ্টি হয়েছিল বলে তিনি জানান।