পদ্মা সেতু নিয়ে বিশ্বব্যাংকের দুর্নীতির অভিযোগ সঠিক নয়

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত বলেছেন, পদ্মা সেতু নির্মাণের মূল কাজ এ বছরেই শুরু করা হবে। পদ্মা সেতু নিয়ে বিশ্বব্যাংক দুর্নীতির যে অভিযোগ তুলেছিলো তা সঠিক নয়। তিনি বলেন, “পদ্মা সেতু নির্মাণ কাজ নিয়ে অতীতেও কোনো দুর্নীতি হয়নি, ভবিষ্যতেও কোনো দুর্নীতি হবে না।”

বৃহস্পতিবার দুপুর সোয়া ১টার দিকে মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগরের রাঢীখাল গ্রামে রাঢীখালের জমিদার যদুনাথ রায়ের বাড়িতে নির্মিত বিক্রমপুর যাদুঘর পরিদর্শনকালে তিনি এ কথা বলেন।

অর্থমন্ত্রী হেফাজত ইসলাম প্রসঙ্গে বলেন, “হেফাজতে ইসলাম কোনো রাজনৈতিক দল নয়। হেফাজতে ইসলাম লংমার্চের কর্মসূচি না দিলেই পারতো।”


তিনি আরও বলেন, “দেশব্যাপী সহিংসতায় জড়িত জামায়াত-শিবিরকে প্রতিহত করা হবে। জামায়াত ইসলামী যুদ্ধাপরাধীদের বিচার ঠেকাতে চায়। জামায়াতের এ দেশে থাকাই উচিত না।”

এ সময় অর্থমন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব শুধাংশু শেখর বিশ্বাস, উপ সচিব মজিবুর রহমান, সিনিয়র সহকারী সচিব এ কে এম মিজানুর রহমান, অর্থমন্ত্রীর স্ত্রী সাবিহা মুহিত, মেয়ে শামিমা মুহিত, ছেলে শাহেদ মুহিত ও ছেলের বউ মন্তাসা শাহেদ উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়া মুন্সীগঞ্জের জেলা প্রশাসক মো. সাইফুল হাসান বাদল, সিভিল সার্জন বনদীপ লাল দাসসহ জেলা প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

পরে অর্থমন্ত্রী দুপুর ৩টার দিকে লৌহজং উপজেলায় আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য নূহ উল আলম লেলিনের বাড়িতে যান।


বিকেল সাড়ে ৪টায় সদর উপজেলার রামপাল ইউনিয়নের রঘুরমাপুরে খনন কাজকালে আবিষ্কৃত বৌদ্ধ বিহার পরিদর্শনে যাবেন। সেখানে প্রত্ন খননের কাজ পরিদর্শন করে বিকেলে তিনি মুন্সীগঞ্জ শহরের সার্কিট হাউসে বিশ্রাম করবেন।

এরপর সন্ধ্যা ৭টার দিকে জেলার টঙ্গিবাড়ী উপজেলার হাসাইল-বানারী স্কুল মাঠে জেলা প্রশাসন ও চ্যানেল আই কর্তৃক আয়োজিত “কৃষি বাজেট-কৃষকের বাজেট” অনুষ্ঠানে যোগ দিবেন।

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম