বৌদ্ধ বিহার পরিদর্শন করলেন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা

bbihar30মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার রঘুরামপুরে নতুন সন্ধান পাওয়া বৌদ্ধ বিহার পরিদর্শন করেছেন সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের সচিব ও প্রত্ন-বিভাগের মহাপরিচালক। শনিবার সকাল ১১টায় সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের সচিব সুরাইয়া বেগম, অতিরিক্ত সচিব মো. শফিকুল ইসলাম, প্রত্ন বিভাগের মহাপরিচালক শিরিন আক্তার, প্রত্ন বিভাগের ঢাকা বিভাগীয় পরিচালক ড. মুহাম্মদ আতাউর রহমান, প্রত্ন খনন প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক নুহ উল আলম লেলিন, মুন্সীগঞ্জের জেলা প্রশাসক মো. সাইফুল হাসান বাদল বৌদ্ধ বিহার পরিদর্শনে আসেন।

দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত বৌদ্ধ বিহার পরিদর্শনকালে বিভিন্ন তথ্য ও উপাত্ত সংগ্রহ করেন তারা।

এসময় বিশিষ্ট কলামিস্ট ও পরিবেশবাদী আন্দোলনের নেতা সৈয়দ আবুল মকসুদ ও জাতীয় কবিতা পরিষদের সভাপতি কবি হাবিবুল্লাহ সিরাজীসহ সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় ও প্রত্ন-বিভাগের একদল প্রতিনিধি উপস্থিত ছিলেন।


পরে দুপুর ১টার দিকে প্রতিনিধি দলটি শহরের ইদ্রাকপুর দূর্গ পরির্দশন করে এর বেহাল অবস্থা পর্যবেক্ষণ করেন।

সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের সচিব সুরাইয়া বেগম জানান, মুন্সীগঞ্জ তথা বিক্রমপুরে বিভিন্ন ধর্মের মানুষের বসবাস। এখানে যে বৌদ্ধ বিহারের সন্ধান পাওয়া গেছে তা রক্ষাণাবেক্ষণের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের মহাপরিচারক শিরিন আক্তার জানান, চলতি বছরের জুলাই মাসে মুন্সীগঞ্জ শহরে অবস্থিত ইদ্রাকপুর কেল্লার সংস্কার কাজ শুরু করা হবে। এতে ৩০ লাখ টাকা ব্যয় হবে।

তিনি আরও জানান, ঢাকা বিভাগে থাকা প্রত্নতত্ত্ব রক্ষাণাবেক্ষণের জন্য আটটি প্রকল্প হাতে নেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে মুঘল আমলে নির্মিত ইদ্রাকপুর দূর্গ রয়েছে।
bbihar30

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
================

মুন্সীগঞ্জে বৌদ্ধ বিহার পরিদর্শন

মুন্সীগঞ্জের রামপালের রঘুরামপুরে অগ্রসর বিক্রমপুর নামে একটি সংগঠনের ব্যানারে দাবি করা সদ্য সন্ধান পাওয়া বৌদ্ধ বিহারে সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের সচিব ও প্রত্ন-বিভাগের ডিজি পরিদর্শন করেছেন।


শনিবার সকালে সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় ও প্রত্ন-বিভাগের একদল প্রতিনিধি দীর্ঘ সময় ধরে অবস্থান করেন। এ সময় প্রতিনিধি দলের সঙ্গে ছিলেন, অগ্রসর বিক্রমপুর ফাউন্ডেশনের কেন্দ্রীয় পর্ষদের সভাপতি ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য নূহ-উল আলম লেনিন, বিশিষ্ট কলামিস্ট ও পরিবেশী আন্দোলনের নেতা সৈয়দ আবুল মকসুদ, জাতীয় কবিতা পরিষদের সভাপতি কবি হাবিবুল্লাহ সিরাজী। বেলা পৌনে ১১টার দিকে সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের সচিব সুরাইয়া বেগম, অতিরিক্ত সচিব মো. শফিকুল ইসলাম, প্রত্ন বিভাগের ডিজি শিরিন আক্তার, প্রত্নবিভাগের ঢাকা বিভাগীয় পরিচালক ড. মুহাম্মদ আতাউর রহমান, রঘুরামপুর খনন প্রকল্প পরিচালক ড. সুফি মোস্তাফিজুর রহমান, মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রশাসক মো. সাইফুল হাসান বাদল প্রমুখ এ বৌদ্ধ বিহার পরিদর্শন করেন। পরে দুপুর ১টার দিকে প্রতিনিধি দলটি শহরের ইদ্রাকপুর দূর্গ পরির্দশন করেন।

জাস্ট নিউজ