ভুলে ভরা মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রশাসনের ওয়েবসাইড

মোজাম্মেল হোসেন সজল: ভূলে ভরা মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রশাসকের ওয়েবসাইডটি। ডিজিটাল বাংলাদেশের তথ্য-প্রযুক্তির ব্যাপক প্রসার ঘটলেও তার উল্টো চিত্র মিলছে এ সাইডটিতে। জেলার গুরুত্বপূর্ণ এ সাইডটিতে (http://www.dcmunshiganj.gov.bd) তথ্য-উপাত্ত নেই বললেই চলে। ওয়েবসাইডটির পোস্টালে বিভাগ অনুযায়ী যাবতীয় তথ্য থাকার কথা। অথচ সেই বিভাগ গুলোতে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য আপডেট করা নেই। ওয়েব সাইডটি খোলার পর অনেকেই বিরক্তবোধ করেন। সংশ্লিষ্ট সূত্র মতে, মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রশাসকের ওয়েবসাইডটি (মুন্সীগঞ্জ জেলা তথ্য বাতায়ন) নামকরণ করা হয়েছে। এ জেলার গুরুত্বপূর্ণ তথ্যের বাতায়নই নেই।

প্রখ্যাত ব্যক্তিত্ব বিভাগে আপডেট করা হয়েছে দু’জন প্রশাসক রাজনৈতিক ব্যক্তির নাম। তারা হচ্ছেন সাবেক প্রেসিডেন্ট মরহুম ড.ইয়াজউদ্দিন আহম্মেদ এবং তত্ত্বাবধোয়ক সরকারের সাবেক প্রধান উপদেষ্টা ফখরুদ্দিন আহম্মেদ। কিন্তু এ জেলার অনেক প্রখ্যাত ব্যক্তির নাম এ বিভাগে নেই। যারা বাংলাদেশ জন্মের ইতিহাসের অংশ।


বঙ্গবন্ধুর শেখ মুজিবুর রহমানের প্রধান নিরাপত্তা কর্মী মুহাম্মদ মহিউদ্দিন, সাবেক প্রেসিডেন্ট প্রফেসর ড.এ.কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী, সাবেক উপ-প্রধান মন্ত্রী শাহ মোয়াজ্জেম হোসেন, সাবেক তথ্যমন্ত্রী এম শামসুল ইসলাম, সাবেক স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী মিজানুর রহমান সিনহা, সাবেক এলজিআরডি উপমন্ত্রী আবদুল হাইসহ অনেকের নাম এ পাতাটিতে আপডেট করা নেই।

এ জেলার ভাষা ও সংস্কৃতি পাতাটি শূন্য। এখানে কোনো তথ্যই আপডেট করা হয়নি। জনপ্রতিনিধি পাতাটিও ভুলে ভরা। মুন্সীগঞ্জে দুটি পৌরসভা থাকলেও এখানে বর্তমান নিবার্চিত মেয়র এর নাম বা তাদের পরিচিতি নেই। এছাড়াও এ জেলায় কর্মরত সাংবাদিকদের সঠিক তালিকা নেই। স্থানীয় সাংবাদিকদের ভুল তথ্যেভরা একটি তালিকা আপডেট করে রাখা হয়েছিলো। কন্তু তা সরিয়ে ফেলা হয়। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, জেলা প্রশাসকের এ ওয়েবসাইডটির প্রতিমূহূর্ত তথ্য-উপাত্ত আপডেট করার জন্যে সরকারি নিয়োগপ্রাপ্ত একজন সহযোগী প্রোগ্রামার রয়েছে।

এ সাইডটি সম্পূর্ণ দেখা শুনার দায়িত্বে রয়েছেন এডিসি জেনারেল। মুন্সীগঞ্জ জেলা তথ্য অফিস এ ব্যাপারে তেমন কিছু জানেন না বলে দাবি করেন। জেলা তথ্য কর্মকর্তা সিরাজ উদদৌলা খান বলেন, জেলার ওয়েবসাইডটি জেলা প্রশাসকই নিয়ন্ত্রণ করেন।

এ বিষয়ে তার কোন জানা নেই। এদিকে দুটি পৌরসভার মেয়র গুরুত্বপূর্ণ এ ওয়েবসাইডটিতে তাদের নাম না থাকায় তারা দু:খ প্রকাশ করেছেন। মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র একেএম ইরাদত মানু দু:খ প্রকাশ করে বলেন,তথ্য-প্রযুক্তির বর্তমান এ সময়ে বিশ্ব কত এগিয়ে যাচ্ছে। আর আমাদের এখানে সরকারের ডিজিটাল ব্যবস্থাপনার করুন দশা।

কবি মাসুদ অর্ণব গুরুত্বপূর্ণ জেলার এ ওয়েবসাইডটির অসম্পূর্ণ তথ্যের বিষয়টি নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন। তিনি বলেন,বর্তমান সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার ক্ষেত্রে স্থানীয় প্রশাসন গুলো আন্তরিক কিনা সে বিষয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেন।এদিকে এই ওয়েবসাইডটির সহযোগী প্রোগ্রামার জাকির হোসেন এর তার মুঠোফোনে কয়েকবার চেষ্ঠা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

জাস্ট নিউজ