মুন্সীগঞ্জের সিভিল সার্জনের বরখাস্তের আদেশ প্রত্যাহার

ভিটামিন-এ ক্যাপসুল ও কৃমিনাশক ট্যাবলেট খেয়ে শিশুদের অসুস্থ হয়ে পড়ার ঘটনায় মুন্সীগঞ্জ জেলা সিভিল সার্জন ডা. বনদ্বীপ লাল দাসের বরখাস্তের আদেশ প্রত্যাহার করেছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। ভিটামিন-এ ক্যাম্পেইনে কর্তব্য পালনে অবহেলায় তাকে বরখাস্ত করা হয়েছিল। একই অভিযোগে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় গত শুক্রবার মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের সিনিয়র সার্জারি কনসালট্যান্ট ডা. মেজবাহুল বাহারকে বরখাস্ত করে। জেলার সিভিল সার্জনকে বরখাস্ত করার পর ভারপ্রাপ্ত সিভিল সার্জন হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন মেজবাহুল।


মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. এহছানুল করীম জানান, সিভিল সার্জন ডা. বনদ্বীপ লালদাস ১২ মার্চ ভিটামিন-এ ক্যাপসুল ক্যাম্পেইনের দিন থেকে পরবর্তী ২১ দিন ছুটিতে থাকার কারণ দেখিয়েছেন সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়কে। এতে মন্ত্রণালয় তার বরখাস্তের আদেশ প্রত্যাহার করে নেয়। আজ সকালে সিভিল সার্জন তার নিজ পদে যোগ দেবেন।

সিভিল সার্জন ডা. বনদ্বীপ লাল দাস সাংবাদিকদের বলেন, বরখাস্ত করা ও বরখাস্ত প্রত্যাহার করা দুটি ঘটনা সম্পর্কে আমি কিছু জানি না। মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের সিনিয়র সার্জারি কনসালট্যান্ট ডা. মেজবাহুল বাহার জানিয়েছেন, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরখাস্ত করার আদেশে হতবাক হয়েছেন তিনি।

সমকাল