শুক্রবার মুন্সীগঞ্জ শনিবার মানিকগঞ্জ যাবেন খালেদা জিয়া

শুক্রবার মুন্সীগঞ্জে যেতে পারেন বিরোধীদলীয় নেতা ও বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। সংখ্যালঘু ও তাদের ধর্মীয় উপাসনালয়ে হামলায় ক্ষতিগ্রস্তদের সাথে কথা বলবেন তিনি। বিএনপির দফতরের একটি সূত্র জানিয়েছে, এখনো বিষয়টি চূড়ান্ত হয়নি। আজ চূড়ান্ত হবে।

জাতীয়তাবাদী যুবদলের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সাইফ আলী খান জাস্ট নিউজকে জানিয়েছেন, ‘সম্প্রতি মুন্সীগঞ্জে সংখ্যালঘুদের ওপর হামলার ঘটনা হয়েছে। তাদের মন্দিরে হামলা চালিয়ে প্রতিমা ভাঙচুর করা হয়েছে। শুক্রবার ম্যাডাম ওই ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন করবেন।

চলতি মাসের ১৬ তারিখ মানিকগঞ্জে যাবেন বিরোধীদলীয় নেতা ও বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া।
তার বিশেষ সহকারী এডভোকেট শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাস মানিকগঞ্জ সফরের বিষয়টি বৃহস্পতিবার বিকালে জাস্ট নিউজকে নিশ্চিত করেছেন।

বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য মিসেস আফরোজা আক্তার খান রিতা জাস্ট নিউজকে বলেন, ‘ম্যাডাম শনিবার মনিকগঞ্জে যাবেন। হরতালে যারা নিহত হয়েছেন তাদের পরিবারের সদস্যদের খোঁজখবর নেবেন। তবে জনসভার বিষয়টি চূড়ান্ত হয়নি।’

কেন্দ্রীয় কমিটির অপর নেতা ইঞ্জিনিয়ার মইনুল হোসেন শান্ত জাস্ট নিউজকে বলেন, ‘হরতালে নিহতদের পরিবারের খোঁজখবর নিয়ে ম্যাডাম সিঙ্গাইরে পাবলিক মিটিং করবেন।’

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি রাজধানীসহ সারাদেশে ইসলামী ও সমমনা ১২ দলের সকাল-সন্ধ্যা হরতালে উত্তাল হয়ে ওঠে মানিকগঞ্জ। হরতাল চলাকালে সিঙ্গাইর উপজেলায় হরতাল সমর্থক গ্রামবাসী ও পুলিশের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষ হয়। পুলিশের গুলিতে অন্তত ৩০ জন গুলিবিদ্ধ হয়। এ ঘটনায় নারীসহ অন্তত ৫ জন নিহত হয়। নিহতরা হলেন স্থানীয় মসজিদের ইমাম মাওলানা শাহ আলম, ব্যবসায়ী আলমগীর, মাওলানা নাসির উদ্দিন, প্রবাসী নাজিম উদ্দিন ও গৃহবধূ হেলেনা। এদের প্রত্যেকের বয়স ২৮ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে।

(জাস্ট নিউজ