বিএনপির হরতাল পালন॥ মাঠে নেই জামায়াত-শিবির॥ বাসে আগুন

বিএনপি ও জামায়াত শিবিরের ডাকা সকাল সন্ধ্যা হরতাল মুন্সীগঞ্জে বিক্ষিপ্ত কিছু ঘটনার মধ্য দিয়ে পালিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার ভোরে শ্রীনগর উপজেলার ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কের বেজগাঁও নামক স্থানে একটি বাসে আগুন দেয় হরতাল সর্মথকরা। জানাযায়, স্থানীয় সংসদ সদস্য সুকুমার রঞ্জন ঘোষের মালিকানাধীন আনন্দ পরিবহনের ২টি বাস বেজগাঁও এলাকায় পার্কিং করা ছিল। এসময় হরতাল সমর্থকরা বাসে আগুন ধরিয়ে দিলে খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।


এদিকে সকাল সাড়ে ৮টার দিকে হরতালের সমর্থনে শহরে একটি মিছিল বের করে বিএনপির নেতা-কর্মীরা। অপরদিকে বিএনপি অধিষ্যুত এলাকা মুক্তারপুরে জেলা বিএনপি’র সভাপতি আঃ হাইয়ের নেতৃত্বে হরতাল করে নেতা-কর্মী ও সমর্থকরা। এরপর সারা দিন বিএনপি-নেতা কর্মীদের মাঠে দেখা যায়নি। তবে শহরের একতা ক্লিনিকের কাছে ১০/১২ বছর বয়সের কয়েকজন ছেলে কয়েকটি গাড়িতে ইটপাটকেল ছুড়ে এলাকা থেকে চমপট দেয়।

হরতালে মাঠে দেখা যায়নি জামায়াত-শিবিরের কোনো নেতা-কর্মীকে। জামায়াত-শিবিরের পক্ষে কোনো পিকেটিংও চোখে পড়েনি।

হরতালে শহরের এক অংশে দোকানপাট বন্ধ থাকলেও অপর অংশে খোলা ছিল সবধরনের দোকানপাট। কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল থেকে দূরপাল্লার কোন বাস চলাচল করতে দেখা যয়নি। তবে অভ্যন্তরীন রুটে যানবাহন চলাচল ছিল স্বাভাবিক। শহরের গুরুত্বপূর্ন পয়েন্টে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

এদিকে হরতালের বিপক্ষে মিছিল করেছে জেলা আওয়ামী লীগ। এসময় জেলা আওয়ামী লীগের স্থানীয় নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিল।

মুন্সীগঞ্জ নিউজ