সংঘর্ষের ঘটনায় বিএনপি ও যুবদল নেতার দু’পক্ষে পাল্টা-পাল্টি মামলা দায়ের

সামসুল হুদা হিটু: মুন্সীগঞ্জ শহরের দক্ষিন ইসলামপুর এলাকায় বিএনপি ও যুবদল নেতার দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় সদর থানায় পাল্টা-পাল্টি ২ টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। ২ টি মামলায় ২৭ জনকে আসামী করা হয়েছে। তাছাড়া সংঘর্ষের ঘটনায় গ্রেফতার হওয়া পৌর কাউন্সিলর এনামুল হকসহ ৩ জনকে মঙ্গলবার বিকেলে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। গ্রেফতারকৃত পৌর কাউন্সিলর এনামুল, সাবেক ভিপি মোস্তফা হাবিবে আলম শাহরিয়ার ও ওলামা দলের নেতা আব্দুল রশীদ মুন্সীকে দুপুরে আদালতে পাঠানো হলে জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করে জেল হাজতে প্রেরনের নির্দেশ দেয় আদালত।


এদিকে, শহর যুবদলের সভাপতি পৌর কাউন্সিলর এনামুল হকের সমর্থিত মো: রিকুর স্ত্রী পলি আক্তার বাদী হয়ে মঙ্গলবার সকালে সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। শহর বিএনপির সভাপতি শহীদুল ইসলাম, জেলা যুবদলের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক সুলতান আহমেদ ও সরকারি হরগঙ্গা কলেজের সাবেক ভিপি মোস্তফা হাবিবে আলম শাহরিয়াসহ ১২ জনকে আসামী করে এ মামলা দায়ের করা হয়। মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর এনামুল হক ও ওলামা দলের নেতা আব্দুর রশীদ মুন্সীসহ ১৫ জনকে আসামী করে সদর থানায় পাল্টা মামলা দায়ের করেন পৌরসভার মহিলা কাউন্সিলর নাসিমা আক্তার সিমা।

শহর বিএনপির সাধারন সম্পাদক শহীদুল ইসলাম জানান, দলীয় কোন্দল নিয়ে এ সংঘর্ষ হয়নি। ব্যক্তিগত ও জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে এ সংঘর্ষ হয়েছে। সংঘর্ষের সঙ্গে রাজনৈতিক বা দলীয় সম্পৃক্ততা নেই।

উল্লেখ্য, গত সোমবার বিকেলে শহরের দক্ষিন ইসলামপুর এলাকায় ওই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে কানাডা প্রবাসীসহ ৫ জন আহত হন।

ওয়ান নিউজ