মুন্সীগঞ্জে সাংবাদিকদের মানববন্ধন

faridআরটিভি মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি মো. ফরিদের উপর ফেরির স্টাফদের হামলা ও লাঞ্ছিত হওয়ার ঘটনার বিচার দাবিতে সোমবার সকালে মুন্সীগঞ্জ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সামনে জেলার সাংবাদিকরা মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে। লাঞ্ছিত হওয়ার ঘটনা এক সপ্তাহ পার হলেও প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোনো পদক্ষেপ না নেয়ায় জেলার সাংবাদিকরা ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, প্রবীণ সাংবাদিক শেখ আলী আকবর, দৈনিক জনকণ্ঠ স্টাফ রিপোর্টার মীর নাসির উদ্দিন উজ্জ্বল, স্থানীয় সাপ্তাহিক বিক্রমপুর সংবাদ সম্পাদক মো. সেলিম, সিনিয়র সাংবাদিক রশীদি মাহমুদ, দৈনিক সংবাদের মাহাবুব আলম লিটন, চ্যানেল আইয়ের রাসেল মাহমুদ, এটিএন বাংলার বাছির উদ্দিন জুয়েল দৈনিক জনতার মো. সুমন ইসলাম, বৈশাখী টেলিভিশনের মো. লাবলু মোল্লা, বাংলাদেশ টেলিভিশনের ফারহানা মির্জা, একাত্তর টেলিভিশনের জসীম উদ্দীন দেওয়ান, ডেলি সানের মো. মাসুদ, দৈনিক মুন্সীগঞ্জের কাগজ চিফ রিপোর্টার মাসুদ রানা, যমুনা নিউজের মো. জাফর মিয়া, সাংবাদিক মাহাবুব আলম জয়, মো. শাহিন মিয়াসহ সর্বস্তরের মানুষ।

মো. ফরিদ জানান, ঘটনার পরেই আমি থানায় মামলা দায়েরের ব্যপারে জেলা পুলিশ সুপারের সঙ্গে মোবাইল ফোনে কথা বললে তিনি বলেন আপনি যে নির্দোষ তাতো তাৎক্ষণিক ভাবেই প্রমাণ হয়েছে। মামলা দায়ের করলে উল্টো আমার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে চার্শিট দাখিল করা হবে বলে হুমকি দেন।

উল্লেখ্য, ১৯ ফেব্রুয়ারি মঙ্গলবার সন্ধ্যায় মাওয়া আরটিভির সাংবাদিক মো. ফরিদ পেশাগত দায়িত্ব পালন শেষে মাওয়ার ফেরার উদ্দেশ্যে বিকেলে কাওড়াকান্দি ঘাট থেকে আরটিভির স্টিকার লাগানো মোটরবাইক নিয়ে অন্যান্য বাইকের সঙ্গে ফেরিটিতে ওঠা নিয়ে ফেরি থোবালের সারেং ফয়েজের সঙ্গে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে ফেরির স্টাফদের পক্ষে শতাধিক লোক লাঠিসোঁটা নিয়ে যাত্রীদের উপর হামলা চালায়। এ সময় ফরিদের সঙ্গে থাকা মোবাইল ও ক্যামেরা নিয়ে যায় হামলাকারিরা।

বাংলামেইল২৪