মুসল্লিদের মিছিল-সমাবেশের নেপথ্যে ছদ্মবেশী বিএনপি-জামায়াত!

শাহবাগের প্রজন্ম চত্বরের ব্লগাররা ইসলাম ধর্ম ও মহানবীকে (সা:) নিয়ে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করেছে-এমন ধুয়া তুলে মুন্সীগঞ্জ শহরে শুক্রবার দুপুরে সাধারন মুসল্লির ব্যানারে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করা হয়েছে। মুসল্লির ছদ্মবেশে এ মিছিল ও সমাবেশের নেপথ্যে কাজ করেছে শহরের বিএনপি-জামায়াত গোষ্ঠী। শুক্রবার দুপুরে জুম্মা নামাজ শেষে বিএনপি অধ্যুষিত ২ টি এলাকার কয়েকটি মসজিদ থেকে সাধারণ মুসল্লির ছদ্মবেশে বিএনপি-জামায়াত নেতাকর্মীরা শহরের থানারপুল এলাকায় মুক্তিযুদ্ধ ভাস্কর্য অংকুরিত যুদ্ধ ৭১’র পাদদেশে ও শহরের পুরাতন কাচারী এলাকায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সমাবেশ করেছে। সাধারণ মুসল্লির ছদ্মবেশী বিএনপি-জামায়াত সমাবেশ থেকে শাহবাগের প্রজন্ম চত্বরকে বেজন্মা চত্বর হিসেবে আখ্যা দিয়েছে। ছদ্মবেশী বিক্ষোভকারীরা দ্রুত সময়ের মধ্যে যুদ্ধাপরাধীদের বিচার বন্ধ ও আর্ন্তজাতিক যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনাল গুটিয়ে নেওয়ার দাবী তুলেছে। সমাবেশে শাহবাগের গনজাগরন আন্দোলন ভেঙ্গে দেওয়ার হুশিয়ারী উচ্চারন করে বিএনপি-জামায়াত।


এদিকে, বিএনপি অধ্যুষিত শহরের উত্তর ইসলামপুর ও দক্ষিন ইসলামপুর এলাকার মাদ্রাসা থেকে শুক্রবার দুপুরে জুম্মা নামাজ শেষে বিএনপি-জামায়াতের শত শত নেতাকর্মীর অংশ গ্রহনের মধ্য দিয়ে খন্ড খন্ড বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। খন্ড খন্ড এ মিছিল এসে সমবেত হয় শহরের থানারপুল মুক্তিযুদ্ধ ভাস্কর্যে। এখানে সমাবেশে ছদ্মবেশী বিএনপি-জামায়াত নেতাকর্মীরা শাহবাগের গন-জাগরন মঞ্চকে
নাস্তিকের আস্তানা আখ্যা দিয়ে তা ভেঙ্গে দেওয়ার কথা জানান।

পরে মিছিলযোগে তারা শহরের পুরাতন কাচারী এলাকার কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে গিয়ে আরেকটি সমাবেশ করে। এ সময় বিএনপি-জামায়াতের অসংখ্য নেতাকর্মীর উপস্থিতি দেখা গেছে সাধারন মুসল্লির মিছিল-সমাবেশে।


মুক্তিযুদ্ধ ভাস্কর্য ও শহীদ মিনারে পৃথক সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন বিএনপি অধ্যুষিত শহরের দক্ষিন ইসলামপুর এলাকাস্থ মাদ্রাসার অধ্যক্ষ শামসুল আরেফিন, মাওলানা নজরুল ইসলাম, মাওলানা হাসান, মুফতি আমিন সিদ্দিক, উত্তর ইসলামপুর জামে মসজিদের ঈমাম আবদুল জলিল, জামায়াত নেতা আরমান, আমিনুল ইসলাম প্রমুখ।

টাইমস্ আই বেঙ্গলী