মুন্সীগঞ্জে ধলেশ্বরীতে গুম লাশ উদ্ধার

LASS MUNSHIGANJমুন্সীগঞ্জ শহর লাগোয়া ধলেশ্বরী নদীতে হাত-পা ও চোঁখ বাঁধা অবস্থায় অজ্ঞাত পরিচয়ের এক যুবকের (৩৫) লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৮ টার দিকে সদর থানা পুলিশ শহরের হাটলক্ষীগঞ্জ বেঁড়িবাঁধ এলাকা থেকে এ লাশ উদ্ধার করে। সদর থানার অফিসার ইনচার্জ আবুল বাসার জানান, ভারী পাথর বেঁধে লাশটি নদীতে ফেলা হলে স্রোতের তোড়ে লাশটি শহর লাগোয়া হাটলক্ষীগঞ্জ এলাকায় এসে ভেসে উঠে। যুবককে অন্য কোথাও হত্যা করা হয়েছে।

এরপর দুস্কৃতকারীরা এ লাশ নদীতে ফেলে দেয় বলে পুলিশ প্রাথমিক ভাবে ধারনা করছে। এদিকে উদ্ধার করা অজ্ঞাত পরিচয়ের যুবকের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। লাশের হাত-পা শক্ত দঁড়ি দিয়ে ও চোঁখ গামছা দিয়ে বাঁধা ছিল।

জাস্ট নিউজ
======


ধলেশ্বরী নদী থেকে অজ্ঞাতপরিচয় যুবকের লাশ উদ্ধার

মুন্সীগঞ্জের ধলেশ্বরী নদীর হাটলক্ষীগঞ্জ বেরিবাঁধ এলাকা থেকে অজ্ঞাতপরিচয় এক যুবকের (৩৫) লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে স্থানীয়দের কাছে খবর পেয়ে লাশটি উদ্ধার করে পুলিশ।

মুক্তারপুর নৌপুলিশ ফাঁড়ির উপপরিদর্শক (এসআই) মো. মোশারফ হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে বাংলানিউজকে জানান, অন্য কোথাও হত্যার পর লাশ নদীতে ফেলে দেওয়া হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

তিনি আরও জানান, যুবকটিকে হত্যার পর ঘাতকরা হাত পাসহ শরীরে পাথর বেঁধে লাশ নদীতে ফেলে দেয়। পরে তা ভাসতে ভাসতে ধলেশ্বরী নদীতে চলে এসেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে বলেও জানিয়েছেন ওসি।

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম