মাওয়া নৌরুটে প্রাণে বেঁচে গেছেন দেড়-শতাধিক যাত্রী

মাওয়া-কাওড়াকান্দি নৌরুটে মাঝ পদ্মায় যাত্রীবোঝাই ২ টি লঞ্চের মধ্যে মুখোমুখি সংঘর্ষে অল্পেতে প্রাণে বেঁচে গেছেন দেড়-শতাধিক যাত্রী। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে টার দিকে নৌ-চ্যানেলের মাগুরখন্ড পয়েন্টে মাঝ পদ্মায় এমভি মায়ের দোয়া ও পানিরাজ নামীয় ২ টি লঞ্চের মধ্যে মুখোমুখি এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে কোন হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। তবে প্রাণে রক্ষা পেয়েছেন লঞ্চ দু’টিতে থাকা দেড় শতাধিক যাত্রী।


বিআইডবিউটিসির সহকারী মহাব্যবস্থাপক আশিকুর রহমান দু’টি লঞ্চের মধ্যে সংঘর্ষের তথ্য নিশ্চিত করেছেন। মাওয়া নৌ-ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই খন্দকার খালিদ হোসেন জানান, সকালে কাওড়াকান্দিঘাট অর্ধ-শতাধিক যাত্রীবোঝাই করে এমভি মায়ের দোয়া নামের একটি লঞ্চ মাওয়ার উদ্দেশ্যে রওনা দিয়ে আসে। প্রায় ১’শ যাত্রীবোঝাই করে একই সময়ে মাওয়া থেকে কাওড়াকান্দি ঘাটের উদ্দেশ্যে রওনা দিয়ে মাওয়াঘাট ছেড়ে যায় এমভি পানিরাজ নামের অপর একটি লঞ্চ। লঞ্চ দু’টি নৌরুটের মাওয়া-মাগুরখন্ড-হাজরা-কাওড়াকান্দি চ্যানেলের মাগুরখন্ড কুযশার কবলে পড়ে সংঘর্ষ বাঁধে। মাওয়া নৌ-বন্দরের ট্রাফিক ইন্সপেক্টর আক্তার হোসেন বলেন, কুয়াশার মধ্যে লঞ্চ দুটি ছেড়ে যাওয়ায় এ ঘটনা ঘটে। তবে, লঞ্চের দু’টির কোন ক্ষয়ক্ষতি ও কেউ হতাহত হয়নি বলে তিনি দাবি করেন।

জাস্ট নিউজ