টঙ্গিবাড়ীতে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগে স্বামী আটক

মুন্সীগঞ্জের টঙ্গিবাড়ী উপজেলার সালিমাবাদ গ্রামে শিউলি বেগম (৩০) নামে এক গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ অভিযোগে শনিবার সকালে শিউলির স্বামী শাহীন কাজীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শাহীন উপজেলার আব্দুল্লাপুর ইউনিয়নের সালিমাবাদ গ্রামের বাসিন্দা। শিউলি সদর উপজেলার ডিঙাভাঙ্গা গ্রামের রহিম সরদারের মেয়ে।

শিউলিকে হত্যার অভিযোগে শুক্রবার তার বোন লাকী বেগম বাদী হয়ে শিউলির স্বামী শাহীন (৩৮), ভাসুর লিটন কাজী (৫০), দেবর মিঠু কাজী (৩৩) ও সবুজ কাজীকে (৩০) আসামি করে টঙ্গিবাড়ী থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।

লাকি বেগম বাংলানিউজকে জানান, ১২ বছর আগে শিউলি ও শাহীনের বিয়ে হয়।


লাকি বেগমের অভিযোগ, বিয়ের পর থেকেই বিভিন্ন অজুহাতে শিউলিকে নির্যাতন করতেন শাহীন। নির্যাতনের প্রতিবাদ করায় বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে শাহীন শ্বাসরোধ করে শিউলিকে হত্যা করেন।

টঙ্গিবাড়ী থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এস এ খালেক আটক করার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম