লৌহজংয়ে গুচ্ছগ্রামের পুকুর দখলমুক্ত হলো

‘গুচ্ছগ্রামের পুকুর দখল’ শিরোনামে সমকালে মঙ্গলবার সংবাদ প্রকাশের পর গতকাল বুধবার ঘটনার তদন্ত করেছে প্রশাসন। তদন্তে সংবাদের সত্যতা খুঁজে পেয়েছেন বলে জানিয়েছেন তদন্তকারী কর্মকর্তা লৌহজং উপজেলা ভূমি অফিসের কানুনগো মো. ইকবাল হোসেন। এদিকে মঙ্গলবার প্রতিবেদনটি ছাপা হলে স্থানীয় এলাকাবাসীর মাঝে ব্যাপক প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়। পরে জনতা গুচ্ছগ্রামের পুকুর পাড়ের অবৈধ বাঁশের বেড়া তুলে ফেলে।

কানুনগো ইকবাল হোসেন বলেন, একটি মহল পুকুরটি অবৈধভাবে দখলের চেষ্টা করছিল। ঘটনাস্থলে গিয়ে এর সত্যতা খুঁজে পাই। বাঁশ দিয়ে পুকুর পাড়ে বেড়াও দিয়েছিল। কিন্তু জনতা বাঁশের বেড়া তুলে দিয়েছে। পুকুরটি গুচ্ছগ্রামের লোকজনই ব্যবহার করবে। যথাযথ কাগজপত্র দেখাতে না পারলে এ জায়গায় অন্য কেউ যেতে পারবে না।


লৌহজংয়ের ইউএনও মো. আসাদুজ্জামান বলেন, সংবাদটি পড়ে উপজেলা ভূমি অফিসের কানুনগো, সার্ভেয়ার ও সংশ্লিষ্ট ইউপি ভূমি অফিসের তহসিলদারের সমন্বয়ে ৩ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। বুধবার কমিটি তদন্ত শেষ করেছে। তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিলে জেলা প্রশাসকের সঙ্গে আলোচনা সাপেক্ষে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সমকাল