তত্ত্বাবধায়ক না দিলে মাঠ ছাড়ব না : সপু

আগামী নির্বাচন তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনেই হতে হবে। তত্ত্বাবধায়ক ছাড়া বাংলাদেশের মাটিতে কোনো নির্বাচন হতে দেয়া হবে না। এ দাবি পূরণ ছাড়া আমরা মাঠ ছাড়ব না। স্বেচ্ছাসেবক দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক মীর সরফত আলী সপু সরকারকে উদ্দেশ্যে করে বলেছেন, তত্ত্বাবধায়কে ভয় একটাই- তত্ত্বাবধায়ক সরকার দিলে তারা আর ক্ষমতায় আসতে পারবে না।

শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে সিরাজদিখানের নিমতলা আওলাদ হোসেন সুপার মার্কেট চত্বরে গরিব শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ হুশিয়ারি উচ্চারণ করেন তিনি।

সপু বলেন, তত্ত্বাবধায়ক দিলে হাজার হাজার কোটি টাকার লুটপাটের দায়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছেলে জয়, তার আত্মীয়-স্বজনসহ তার দলের অনেক নেতাকেই জেলে যেতে হবে।

হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আপনাদের দেখে কষ্ট ও আনন্দ- দু’টোই লাগছে। আমরা জানি, হিন্দু লোকেরা নৌকায় ভোট দেয়; অথচ ছাত্রলীগ ক্যাডারই বিশ্বজিতকেও হত্যা করেছে। তারা হিন্দুদের উপর জুলুম-নির্যাতন চালাচ্ছে।

মীর সরফত আলী সপু বলেন, আওয়ামী লীগ কিভাবে জনগণের কাছে ভোট চায়, লজ্জা নেই বলেই তারা ভোট চায়। এ সরকার ৭২-৭৫ সালের রক্ষীবাহিনীকেও ছাড়িয়ে গেছে। প্রতিদিনই দেশে গুম, হত্যা হচ্ছে। মুন্সীগঞ্জও এ থেকে বাদ পড়ছে না। হত্যা, গুম সারাদেশে ছড়িয়ে পড়েছে। আওয়ামী লীগ সরকারি দল হিসেবে জনগণের পাশে দাঁড়ানো উচিত, কিন্তু তারা দাঁড়ায়নি।

বিএনপি মাটি ও মানুষের দল হওয়ায় অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে। আওয়ামী লীগের ছাত্রলীগ এখন এক আতঙ্কের নাম। তারা মানুষ খুনসহ টে-ারবাজি ও ভাগ-বাটোয়ারা নিয়ে ব্যস্ত বলে মন্তব্য করেন স্বেচ্ছাসেবক দলের এ সাধারণ সম্পাদক।


উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি সিদ্দিক মোল্লার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন সম্রাট, তাজুল ইসলাম, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি আওলাদ হোসেন উজ্জ্বল, সাধারণ সম্পাদক ইদ্রিস মিয়াজী মোহন, স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা নূরুল ইসলাম পার্থ, মো. মারুফ, মো. সুজন, কামরল ইসলাম নয়ন, এম আর রায়হান, বিএনপি নেতা ফরহাদ রানা, আলাউদ্দিন মোল্লা, জেলা মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদিকা জাহানারা বেগম, জাসাস নেতা বাবুল আহমেদ মিন্টু, ছাত্রদল নেতা কামরুজামান লিপু প্রমুখ।

জাস্ট নিউজ