উৎকোচ দাবি, অতঃপর ক্ষমা প্রার্থনা…

সাড়ে তিন হাজার টাকা উৎকোচ দাবি করার ঘটনা জানাজানি হওয়ার পর ভুল স্বীকার করে জেলা প্রশাসকের কাছে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইলেন এক সহকারী ভূমি কর্মকর্তা। সোমবার দুপুরে মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া উপজেলার ভচেরচরের ভূমি অফিসে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, গজারিয়ার পুরান বাউশিয়া এলাকার হারুনুর রশীদ নামে এক ব্যক্তির কাছ থেকে তার ৮ শতাংশ জমির কাগজপত্র ঠিক করে দেওয়ার কথা বলে সাড়ে তিন হাজার টাকা ঘুষ দাবি করেন সহকারী ভূমি কর্মকর্তা গোলাম রাব্বানী।


বিয়য়টি মুন্সীগঞ্জের জেলা প্রশাসক সাইফুল হাসান বাদল জানতে পেরে সরেজমিন ভূমি অফিসে গিয়ে অভিযোগের সত্যতা খুঁজে পান। এরপরই সহকারী ভূমি কর্মকর্তা গোলাম রাব্বানী তার সহযোগীকে নিয়ে তার এ অপরাধের জন্য ভুল স্বীকার করে জেলা প্রশাসক সাইফুল হাসান বাদলের কাছে প্রকাশ্য ক্ষমা প্রার্থনা করেন।

এ প্রসঙ্গে গজারিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) কামরুননাহান বাংলানিউজকে জানান, সরকার নির্ধারিত ফি ২৫০ টাকার পরিবর্তে সাড়ে তিন হাজার টাকা দাবি করেন ওই ভূমি কর্মকর্তা।

তিনি আরও জানান, এ সময় কাগজপত্র ঠিক করতে সরকার নির্ধারিত টাকার চেয়ে অতিরিক্ত টাকা না নেওয়ার জন্য তার কাছ থেকে প্রতিশ্রুতি আদায় করেন জেলা প্রশাসক।


জেলা প্রশাসক মো. সাইফুল হাসান বাদল ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বাংলানিউজকে জানান, এ ঘটনায় ওই ভূমি কর্মকর্তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
================