শিশুকে পাশবিক নির্যাতন : আসামি কারাগারে

মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার বজ্রযোগিনী গুচ্ছ গ্রামে প্রথম শ্রেণীর ছাত্রীকে পাশবিক নির্যাতনের ঘটনায় আসামি রাসেল গাজীকে (১৯) জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। এছাড়া নির্যাতনকারীর বিরুদ্ধে রিমান্ড শুনানির দিন ধার্য করা হয়েছে বুধবার। থানা হেফাজতে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ ৫ দিনের রিমান্ড আবেদন করে সোমবার দুপুরে রাসেল গাজীকে জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে পাঠায়।

এতে আদালত বুধবার রিমান্ড শুনানির দিন ধার্য করে রাসেল গাজীকে জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেয়।


এদিকে, মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে সোমবার সকালে নির্যাতিত স্কুল ছাত্রীর ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন করা হয়েছে বলে আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. এহসানুল করীম জানিয়েছেন।

তিনি জানান, এখনো পর্যন্ত সুস্থ হয়ে উঠেনি সে। জেনারেল হাসপাতালের শিশু ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন রয়েছে স্কুল ছাত্রী।

সদর থানার অফিসার ইনচার্জ আবুল বাসার জানান, রোববার দিবাগত রাতে রাসেল গাজীকে একমাত্র আসামি করে মেয়েটির মা গার্মেন্ট কর্মী মামলা দায়ের করেন। পুলিশি হেফাজতে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদালতে চার দিনের রিমান্ড চাওয়া হয়।


উল্লেখ্য, শনিবার দিবাগত রাতে টেলিভিশন দেখার কথা বলে প্রথম শ্রেণীর ছাত্রীকে নিরিবিলি স্থানে নিয়ে গিয়ে প্রতিবেশী যুবক রাসেল গাজী (১৯) পাশবিক নির্যাতন চালায়।

জাস্ট নিউজ