চাদাঁ আদায় নিয়ে ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কের বাস চলাচল বন্ধ

পরিবহন শ্রমিকদের কল্যাণের নামে বাসপ্রতি ৩০ টাকা করে চাঁদা আদায়কে কেন্দ্র করে ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কে শনিবার সকাল থেকে বাস চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে। এ ঘটনার জের ধরে দুপুরে আনন্দ পরিবহনের ২ বাস শ্রমিককে মারধর করা হয়েছে।

জানা গেছে, শুক্রবার বিকেলে লৌহজং উপজেলা পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন মাওয়া চৌরাস্তায় বাসপ্রতি ৩০ টাকা চাঁদা আদায় শুরু করলে জেলা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সঙ্গে বিরোধ দেখা দেয়।

এ বিরোধকে কেন্দ্র করে শনিবার সকাল থেকে ঢাকা-মাওয়া সড়কের চলাচলরত কয়েকটি পরিবহনের শত শত বাস চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয় বলে জানিয়েছেন মাওয়া নৌ-ফাঁড়ির উপ-পরির্দশক (এসআই) খন্দকার খালিদ হোসেন।


বর্তমানে এ সড়কে শুধু বিআরটিসি ও প্রচেষ্টা নামে দু’টি পরিবহনের বাস চলাচল করছে বলে জানান তিনি।

তিনি আরও জানান, বিয়টি সমাধানে সমঝোতার চেষ্টা চলছে।

এ বিষয়ে লৌহজং উপজেলা পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মো: আবুল কাশেম জানান, শ্রমিকদের কল্যাণে এ চাঁদা আদায় যৌক্তিক।

তবে ঢাকা-মাওয়া সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সভাপতি আলী আকবর জানান, তাদের সমিতির আওতাভুক্ত বাস থেকে চাঁদা আদায় করার জের ধরে এ সড়কে বাস চলাচল বন্ধ করে দিতে বাধ্য হয়েছেন তারা।

এদিকে, সড়কে বাস চলাচল বন্ধ থাকায় দক্ষিণবঙ্গের হাজারো যাত্রীকে শনিবার সকাল থেকেই মাওয়া ও গুলিস্তান পয়েন্টে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম