শ্রীনগরে বখাটের ভয়ে ভিটেমাটি ছাড়া স্কুলছাত্রীর পরিবার

মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগরে বখাটের বিরুদ্ধে মামলা করায় যৌন হয়রানির শিকার এক স্কুলছাত্রীর পরিবারকে বসতবাড়ি থেকে উচ্ছেদ করা হয়েছে। উচ্ছেদের ৪ মাস অতিবাহিত হলেও নিজ বসতভিটেতে ফিরতে পারেনি পরিবারটি। বর্তমানে পরিবারটি পার্শ্ববর্তী এলাকার নিকট আত্মীয়ের আশ্রয়ে বসবাস করছেন।

গ্রামবাসী জানায়, ৭ মাস আগে শ্রীনগর উপজেলার বীরতারা ইউনিয়নের নীমতলী গ্রামের অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রীর বাবা-মার অনুপস্থিতিতে রাতের বেলা ঘরের ভেতর ঢুকে তার উপর পাশবিক নির্যাতন ও যৌন হয়রানি করে এলাকার বখাটে রাকিব। সে সময় বখাটে রাকিবের বাবা রুহুল আমিন প্রভাব খাটিয়ে ঘটনা ধামাচাঁপা দেয়ার চেষ্টা করে। কিন্তু তাকে মীমাংসার জন্য বলা হলে সে রাজী হয়নি। এতে স্কুলছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে বখাটে ও তার বাবাকে আসামি করে মুন্সীগঞ্জ আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। এতে আসামিরা গ্রেফতার হলেও কয়েকদিন পরই জামিন পেয়ে যায়। এরপরই রাকিব খানের নেতৃত্বাধীন ১০-১২ জনের একটি সন্ত্রাসী গ্রুপ স্কুলছাত্রীর পরিবারের উপর হামলা এবং বসতভিটে থেকে উচ্ছেদ করে ভাঙচুর ও তা-ব চালায়। বর্তমানে ওই স্কুলছাত্রী ৭ মাসের গর্ভবতী হয়ে পড়ায় লোক লজ্জায় মুখ দেখাতে পারছে না। আর বখাটে রাকিবও তাকে বিয়ে করতে রাজি নয়।

শ্রীনগর থানার ওসি সাখাওয়াত হোসেন জানান, উচ্ছেদের ঘটনায় থানায় অভিযোগ করা হয়নি। তারপরও বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হবে।