মৃত্যুর সঙ্গে লড়ছে সন্ত্রাসী হামলায় আহত ছাত্রদল নেতা আওলাদ

মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া উপজেলার টেঙ্গারচর ইউনিয়ন ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি আওলাদ হোসেন সিকদার সন্ত্রাসী হামলার শিকার হয়ে ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে লড়ছেন। গত এক মাস ধরে আওলাদকে যমে-মানুষে টানাটানি চললেও হামলাকারীরা এলাকায় প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে।

জানা গেছে, গত বছরের ২৬ ডিসেম্বর আওলাদ হোসেন শিকদার বাজারে যাওয়ার সময় ইসমাইল, মাসুদ, সাগর, জামালসহ ছাত্র ও যুবলীগের ১০-১২ সন্ত্রাসী তার ওপর হামলা চালায়। তারা বেধড়ক মারধর করে আওলাদের দু’হাত ও পা ভেঙে দেয়।

আহতের পরিবার জানায়, ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা শাহজাহান খান তার লোকদের দিয়ে এ হামলা চালিয়েছে। এদিকে ঘটনার ৩ দিন পর ২৯ ডিসেম্বর হামলাকারী মাসুদ, মাসুম, ইসমাইল, ছাত্তার, সাগরসহ ১০-১২ জনের বিরুদ্ধে গজারিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করা হলেও পুলিশ কাউকে গ্রেফতার করেনি। আসামিরা বরং মামলা তুলে নেয়ার জন্য হুমকি দিচ্ছে।

আওলাদের ভাই মাসুদ মিয়া জানান, এই সন্ত্রাসী চক্রটি অতীতেও তদের বাড়িঘর লুটপাট ও তাদের ওপর হামলা চালিয়েছে।

এ বিষয়ে গজারিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আরজু জানান, মামলার তদন্ত চলছে। আসামিরা আদালতে হাজির হয়ে অস্থায়ী জামিন নিয়ে এসেছে।

[ad#bottom]