প্রতিবাদ

গত ১১ জানুয়ারি দৈনিক জনকণ্ঠের ১ম পাতার ৪র্থ কলামে আড়িয়াল বিলের জমি অধিগ্রহণ প্রক্রিয়া শুরম্ন শীর্ষক যে সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে তার মূল বিষয়বস্তু সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন, বাসত্মবতাবহির্ভূত এবং উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলে প্রতিবাদ জানিয়েছেন আড়িয়াল বিল রৰা কমিটির আহ্বায়ক শাহজাহান বাদল, যুগ্ম আহ্বায়ক আবদুল জলিল মাস্টার, নাসিরম্নদ্দিন আলম পলাশ, হাজী মোহাম্মদ বোরহানউদ্দিন ও বাড়ৈখালী ইউপি চেয়ারম্যান ইকবাল হোসেন মাস্টার।

তাঁরা বলেন, প্রতিবেদনের আড়িয়ায় বিলের জমি অধিগ্রহণের চূড়ানত্ম কার্যক্রম সোমবার শুরম্ন হয়েছে এবং এই মূল বিমানবন্দরের জন্য শ্রীনগর উপজেলার ১০৯৫৫ একর জমি অধিগ্রহণের তিন ধারা নোটিস জারি শুরম্ন হয়ে গেছে বলে যা উলেস্নখ করা হয়েছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন। বাসত্মবে গত সোমবার জাতীয় সংসদ সদস্য সুকুমার রঞ্জন ঘোষ, জেলা প্রশাসক, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার উপস্থিতিতে যে সভা হয়েছে সে সভায় ৰতিগ্রসত্ম জমির মালিকগণসহ উপস্থিত সুধীবর্গের প্রত্যেকেই আড়িয়াল বিলের জমি অধিগ্রহণের তীব্র বিরোধিতা করেন এবং কোনক্রমেই জমি অধিগ্রহণ করতে দেয়া হবে না বলে স্পষ্ট জানিয়ে দেন।

প্রসঙ্গত, আমরা অত্যনত্ম গর্বের সঙ্গে জানাতে চাই যে, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আহ্বানে সাড়া দিয়ে বিক্রমপুর তথা আড়িয়াল বিলের চারপাশের লোকজন মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল এবং মুক্তিযুদ্ধকালীন সময়ে অঞ্চলটি স্বাধীন অঞ্চল হিসেবে চিহ্নিত ছিল। আমরা আরও গর্বের সঙ্গে উলেস্নখ করতে চাই, আমাদের এ অঞ্চলে মুক্তিযুদ্ধবিরোধী কোন রাজাকার ছিল না। কতিপয় বিপথগামী লোকের হাতে বঙ্গবন্ধু শাহাদাত বরণ না করলে আমাদের বিশ্বাস তিনি জীবিত অবস্থায় কখনই লাখ লাখ লোক বেকার করে খাদ্যশস্য, মৎস্য, শাক সবজির ভা-ারকে ধ্বংস করে পুরো বিক্রমপুরকে বন্যার মতো হুমকির মুখে রেখে এ রকম করতেন না। আমাদের বিশ্বাস বঙ্গবন্ধুর কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনাকে ভুল তথ্য দিয়ে মারাত্মক ৰতিকর এ সিদ্ধানত্ম নেয়ার জন্য কিছু স্বার্থান্বেষী মহল এ আড়িয়াল বিলে বিমানবন্দর করার এ আত্মঘাতী প্রকল্প নিতে প্ররোচনা দিচ্ছেন। বিষয়টির বাসত্মব অবস্থা যাচাই করে জাতীয় স্বার্থবিরোধী পদৰেপ বন্ধ করতে আমরা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আশু হসত্মৰেপ কামনা করছি।

আড়িয়াল বিলের জমি অধিগ্রহণ প্রক্রিয়া শুরু

[ad#bottom]