শায়নার স্বপ্ন

সম্প্রতি নির্মিত হয়েছে তিব্বত পমেডের একটি নতুন বিজ্ঞাপনচিত্র। এটি বর্তমানে বিভিন্ন চ্যানেলে প্রচার হচ্ছে। এই বিজ্ঞাপনচিত্রে মডেল হয়েছেন শায়না। তার বর্তমান ও ভবিষ্যতের কথা নিয়ে লিখেছেন খালেদ আহমেদ

ছোটবেলা থেকেই মিডিয়ার প্রতি তার আগ্রহ ছিল। টেলিভিশনে বিভিন্ন বিজ্ঞাপন দেখলে মনে মনে ভাবতেন, যদি আমিও এ রকম মডেল হতে পারতাম, তবে কত না ভালো হতো। পরিচিত অনেককেই বলেছেনও তার স্বপ্নের কথা। মনের সেই লালিত স্বপ্ন একদিন পূরণ হয়ে যায় শায়নার। ২০০৫ সালের কথা। তখন তিনি ক্লাস টেন-এ পড়েন। একদিন সানসিল্কের একটি বিজ্ঞাপনে কাজের অফার আসে পরিচিত একজনের মাধ্যমে। সানন্দেই কাজ করে ফেলেন তিনি। ওই বিজ্ঞাপনটি করার পর মনের আকাঙ্ক্ষা আরো বড় হতে থাকে। তাই নিজেকে সেভাবেই তৈরি করতে থাকেন। এরপর তার ঝুলিতে যুক্ত হয় আরো কয়েকটি বিজ্ঞাপনে পারফর্ম করার অভিজ্ঞতা। এর মধ্যে উলেস্নখযোগ্য হলো_ আরকু গুঁড়া মসলা, তিব্বত কদুর তেল, বাংলালিংক (বাল্ক), প্রাণ চাটনি, তিব্বত ফেয়ারনেস ক্রিম, রেক্সোনা, বাংলালিংক, আপন জুয়েলার্স, কিউট বিউটি সোপ ইত্যাদি। এছাড়া বিভিন্ন প্রিন্ট মিডিয়া ও ফ্যাশন হাউসের মডেল হিসেবে কাজ করেন তিনি।

সম্প্রতি সনক মিত্রের নির্দেশনায় তিব্বত পমেডের একটি নতুন বিজ্ঞাপনচিত্রে মডেল হিসেবে পারফর্ম করেছেন শায়না। বিজ্ঞাপনচিত্রটি বর্তমানে বিভিন্ন চ্যানেলে প্রচার হচ্ছে। ওই বিজ্ঞাপনচিত্রে কাজের অভিজ্ঞতা সম্পর্কে শায়না বলেন, ‘রোজার ঈদের পর ভারতের চেন্নাইয়ে বিজ্ঞাপনের শুটিং হয়েছে। শুটিংয়ের দিন সেখানে প্রচণ্ড রোদ ছিল। সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত টানা শুটিং হয় প্রথম দিন। পরের দিনও বেশ কিছু সময় শুটিং হয়। সেখানে অনেক ভালো লেগেছে। শুটিংয়ের ফাঁকে স্থানীয় লোকজন অনেকেই এসে একসাথে ছবি তোলার জন্য অনুরোধ করে। নিজের বাচ্চাকে আমার কোলে দিয়ে ছবি তুলেছে। তারা সত্যিকার অর্থেই অনেক ভালো। তারা মানুষকে প্রকৃতভাবে সম্মান জানাতে জানে। এই বিষয়টি আমার ভালো লেগেছে।’ তিনি আরো বলেন, ‘এই বিজ্ঞাপনচিত্রের প্রতিটি সিকোয়েন্স অনেক যত্ন নিয়েই করেছেন নির্মাতা সনক মিত্র। কাজটি করতে পেরে আমার ভালো লেগেছে। আর শুটিংয়ের সময় ইউনিটের সবাই আমাকে অনেক সহযোগিতা করেছেন। তাদের প্রতি আমি কৃতজ্ঞ। আর আমি মনে করি, এ বিজ্ঞাপনচিত্রটি আমার ক্যারিয়ারে টার্নিংপয়েন্ট হিসেবে কাজ করবে। বিজ্ঞাপনচিত্রটি বিভিন্ন চ্যানেলে প্রচার হওয়ার পর থেকেই বন্ধু-বান্ধব ও শুভাকাঙ্ক্ষীদের কাছ থেকে প্রচুর প্রশংসা পাচ্ছি।’

মডেলিংয়ের পাশাপাশি শায়না নিজেকে অভিনয় জগতের বাসিন্দা হিসেবেও নাম লিখিয়েছেন টিভি মিডিয়ায়। এরই মধ্যে তার অভিনীত বেশকিছু একখণ্ড ও ধারাবাহিক নাটক প্রচার হয়েছে বিভিন্ন চ্যানেলে। এর মধ্যে একখণ্ডের নাটক ‘ক্রস কানেকশন’, ‘অাঁধারের বাসিন্দা’, ‘প্রেমের অংক’, ‘এল নিনো’, টেলিফিল্ম ‘মন উচাটন’ এবং ধারাবাহিক ‘ডানাকাটা শায়েরি’ ও ‘লোকালয়’। সম্প্রতি শেষ করলেন ‘লাইফ ইজ বিউটিফুল’ নামে ২৬ পর্বের একটি ধারাবাহিকের কাজ। যা প্রচারের অপেক্ষায় রয়েছে। মডেলিং না অভিনয় কোনটি আপনার পছন্দের_এমন প্রশ্নের জবাবে শায়না বলেন, ‘মডেলিং আমাকে চুম্বকের মতো টানে আর অভিনয় হলো ভালোবাসা। ভবিষ্যতে একজন ভালো অভিনেত্রী হতে চাই।’ তিনি বলেন, ‘আমার কাজের ক্ষেত্রে পরিবারের থেকে অনেক উৎসাহ ও সহযোগিতা পেয়েছি।’ বর্তমানে লালমাটিয়া মহিলা কলেজে ব্যবস্থাপনা বিষয়ে অনার্স ফাস্ট ইয়ারে পড়ছেন শায়না। তিনি বিশ্বাস করেন, পরিশ্রম করলে সফলতা আসবেই। মডেল হিসেবে শোবিজে যাত্রা শুরু করলেও শায়নার স্বপ্ন একজন খ্যাতিমান অভিনেত্রী হওয়া।

[ad#bottom]

One Response

Write a Comment»
  1. I HAVE READ HER STORY.–THE SWEET GIRL SHAYNA. I FEEL THE BEST ACTOR CUM MODELIST SHAYNA-BANGLADESHER SWAPNA.THE STORY REALY DREAM IN THIS SUBCONTINENT.

    MY WISHES TO HER & ADVERTISEMENT COMPANY. I WANT TO COTACT HER.

    91+ 9153019530 OR WRITE US -SUKLA BUILDING, BUDHA ROAD,ASANSOL-713301.DT-BURDWAN. W.B. INDIA.