বঙ্গবন্ধু বিমানবন্দরের নতুন স্থান নির্বাচনে ৩ নভেম্বর সিরাজিদখান ও শ্রীনগর যাবে প্রতিনিধিদল

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর নির্মাণের জন্য সম্ভাব্য নতুন স্থান দেখতে ৩ নভেম্বর মুন্সীগঞ্জের সিরাজিদখান ও শ্রীনগর পরিদর্শনে যাবে বিমান সচিবের নেতৃত্বে সাতসদস্যের একটি প্রতিনিধিদল। প্রতিনিধিদলে অন্যদের মধ্যে রয়েছেন প্রকল্পের সেলপ্রধান জয়নাল আবেদীন তালুকদার, সিভিল এভিয়েশনের চেয়ারম্যান এয়ার কমোডর মাহমুদ হাসান, সদস্য (অপারেশন), প্রধান প্রকৌশলী ও মন্ত্রণালয়ের একজন যুগ্ম সচিব এবং বিমান বাহিনীর একজন সদস্য। সম্প্রতি একনেক বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ বিমানবন্দরের জন্য নতুন স্থান দেখার নির্দেশ দেন।

প্রতিনিধিদল পরে শরিয়তপরের জাজিরাসহ পদ্মা নদীর ওপারের কয়েকটি জেলার স্থান পরিদর্শন করবেন। এ প্রকল্পের প্রাথমিক ব্যয় ধরা হয়েছে ৫০ হাজার কোটি টাকা। ২০১৫ সালের মধ্যে সর্ববৃহৎ এ বিমানবন্দর নির্মাণ কাজ বাস্তবায়নের লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়েছে। আগে সম্ভাব্য স্থান হিসেবে ময়মনসিংহের ত্রিশালের দু’টি ও টাঙ্গাইলের ভুয়াপুরে একটি জায়গার প্রস্তাব করা হয়েছিল।

বিমান ও পর্যটন সচিব শফিক আলম মেহেদী জানান, বিশ্বের আধুনিক বিমানবন্দরের আদলে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর নির্মাণ প্রকল্প পাবলিক প্রাইভেট পার্টনারশিপ (পিপিপি)’র মাধ্যমে বাস্তবায়ন করা হবে।

সাইফুল ইসলাম তালুকদার ও হুমায়ুন কবির খোকন:

[ad#co-1]

One Response

Write a Comment»
  1. We need 1st buy airbus…how many airbuses have Bangladesh? 1st count than take decission….pls think…than do