মাওয়ার ‘হত্যাকারী’ গ্রেপ্তার

মাওয়া ঘাটের একটি বাস কোম্পানির কর্মকর্তা মোহাম্মদ টিপু হত্যার মূল ‘হোতা’ ইকবাল (৩৯) কে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। মাদারীপুরের শিবচর উপজেলার মোল্লার হাট গ্রামে থেকে সোমবার রাত ১টার দিকে ইকবালকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে জানিয়েছেন র‌্যাব কর্মকর্তা সিনিয়র এএসপি মিলন। তিনি সাংবাদিকদের বলেন, “ইকবাল হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে।” ইকবালের বাড়ি মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলার কান্দিপাড়া গ্রামে। সোমবার দুপুরে গোধূলী পরিবহনের পরিচালনা কমিটির সদস্য টিপুকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়।

বিডি নিউজ 24
——————————————-

মাওয়ায় পরিবহন কর্মকর্তাকে প্রকাশ্যে কুপিয়ে
হত্যাহত্যাকারী গ্রেফতার ॥ শোক
মাওয়া ঘাটে পরিবহন কর্মকর্তা মোঃ টিপুকে (৩৮) প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যাকারী ইকবাল হোসেনকে (৩৯) সোমবার গভীর রাতে র‌্যাব-১১ গ্রেফতার করেছে। মঙ্গলবার ইকবাল জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি জন্য পাঠালে সে এই জবানবন্দি দিতে অস্বীকার করেছে। তবে র‌্যাব ও পুলিশের কাছের হত্যাকান্ডের কথা স্বীকার করেছে।

এদিকে টিটু হত্যার প্রতিবাদে মঙ্গলবার গোধূলী পরিবহনের সকল বাস চলাচল বন্ধ ছিল। ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কের চলাচলরত সকল লোকাল বাসের মালিক শ্রমীকরা টিটু হত্যার প্রতিবাদে কালো ব্যাচ ধারণ করে এরুটে বাস চলাচল স্বাভাবিক রাখে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা লৌহজং থানার এস আই ইয়াকুব জানান, প্রধান আসামী ইকবাল হোসেন মুন্সিগঞ্জ কোর্টের জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আবুল হাসনাতের কাছে উপস্থাপন করা হয়। হত্যার কথা স্বীকার না করায় ইকবালকে জেল হাজতে পাঠানো হয়।পরবর্তীতে আসামীকে রিমান্ডে আনার আবেদন করা হতে পারে বলে তিনি জানান।
সোমবার রাতে লৌহজং থানায় হত্যা মামলা দায়ের টিপুর ভাই মো. অপু।

ক্যাম্পের ক্যাম্প কমান্ডার সিনিয়র এএসপি মোঃ মিলন মাহমুদ জানান, গ্রেফতারকৃত ইকবাল জেলার লৌহজং উপজেলার কান্দিপাড়া গ্রামের মৃত শেখের আলীর ছেলে। টিপু হত্যাকান্ড ছাড়াও তার বিরুদ্ধে লৌহজং থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। সোমবার গভীর রাতে তাকে মাদারীপুরের শিবচরের কাঁঠালবাড়ি গ্রাম থেকে গ্রেফতার করা হয়। এর আগে সে শ্রীনগর এলাকায় পুলিশের কাছ থেকে ছুটে গিয়ে দৌড়ে পালিয়ে যায়।

সেমাবার দুপুরে গোধূলী পরিচালনা কমিটির সদস্য টিপুকে সাবেক স্টাফ ইকবাল পরিবহনের কাউন্টার থেকে ডেকে নিয়ে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা করে পালিয়ে যায।

টিপু মুন্সিগঞ্জের শ্রীনগর উপজেলার হাতারপাড়া গ্রামের গ্রামের মোস্তফা মিয়া পুত্র। তবে বর্তমানের ঢাকার কদমতলীতে বসবাস করতেন।

বিক্রমপুর সংবাদ
————————

[ad#co-1]