মুন্সিগঞ্জের ধলেশ্বরীর ডুবোচরে যাত্রীবাহী লঞ্চ আটকা

অতিরিক্ত মাল পরিবহনের কারণে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা
মুন্সিগঞ্জের ধলেশ্বরী নদীতে লঞ্চ ঘাটের কাছে মঙ্গলবার রাতে পাতারহাট-১ নামের একটি যাত্রীবাহী দ্বিতল লঞ্চ ডুবোচরে আটকে যায়। পরে বুধবার ভোর ৫ টায় জোয়ার এলে লঞ্চটিকে মুন্সিগঞ্জ টার্মিনালে সরিয়ে আনা হয়। পাখা ভেঙ্গে যাওয়ায় লঞ্চটি গন্তব্যের উদ্দেশ্যে যাত্রা করতে পারেনি। লঞ্চটি সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টায় ঢাকার সদরঘাট থেকে ভোলার লালমোহন ছেড়ে আসে।

মুন্সিগঞ্জ সদর থানার ওসি শহিদুল ইসলাম জানান, রাতে লঞ্চটির যাত্রীদের জানমালের নিরাপত্তায় সার্বক্ষনিক পুলিশ পাহাড়া ছিল। ভোরে যাত্রীদের অক্ষত অবস্থায় অন্যত্র সরিয়ে নেয়া হয়। পরে স্ব স্ব উদ্যোগে যাত্রীরা গন্তব্যে রওনা হয়। এতে যাত্রীদের দুর্ভোগ পোহাতে হয়। তিনি জানান, লঞ্চটি প্রায় আড়াই শ’ যাত্রী ছিল। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাফিউল ইসলাম জানান, লঞ্চটিতে আতিরিক্ত মাল বোঝাই ছিল। তাই বুধবার দুপুরে লঞ্চটিতে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

বিক্রমপুর সংবাদ

—————————————————
ধলেশ্বরীর ডুবোচরে লঞ্চ আটকা, পরে উদ্ধার

মুন্সীগঞ্জ লঞ্চঘাটের কাছে ধলেশ্বরী নদীতে মঙ্গলবার রাতে এমভি পাতারহাট-১ নামের একটি যাত্রীবাহী লঞ্চ ডুবোচরে আটকে যায়। পরে বুধবার ভোর পাঁচটায় জোয়ার এলে লঞ্চটিকে মুন্সীগঞ্জ টার্মিনালে সরিয়ে আনা হয়। মুন্সীগঞ্জ সদর থানার ওসি শহিদুল ইসলাম বাংলানিউজকে জানান, রাতে লঞ্চটির যাত্রীদের জানমালের নিরাপত্তায় পুলিশ পাহাড়া ছিল। ভোরে যাত্রীদের অত অবস্থায় অন্যত্র সরিয়ে নেওয়া হয়।

পাখা ভেঙ্গে যাওয়ায় লঞ্চটি গন্তব্যের উদ্দেশ্যে যাত্রা করতে পারেনি।

লঞ্চটি প্রায় আড়াই শ’ যাত্রী ছিলেন।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাফিউল ইসলাম বাংলানিউজকে জানান, লঞ্চটিতে অতিরিক্ত মাল বোঝাই করায় ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

ফারহানা মির্জা, জেলা প্রতিনিধি
বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম.বিডি

[ad#co-1]