টঙ্গিবাড়ির দুইটি কোল্ড ষ্টোরেজে ৪২ হাজার বস্তা আলু পচে গেছে

কাজী দীপু, মুন্সীগঞ্জ: মুন্সীগঞ্জের টঙ্গীবাড়ি উপজেলার একো ও প্যারাগন নামের দুইটি কোল্ড ষ্টোরেজে সংরক্ষিত ৪২ হাজার বস্তা আলু পঁচে গেছে। এছাড়া সংরক্ষিত অপর বস্তাগুলোর আলুতে চাড়া গজিয়েছে। পচে যাওয়া ওই আলু ফেলে দেয়া ছাড়া কোন গতি নেই বলে ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকরা জানিয়েছেন। এমনিতে এবার আলুর দাম কম হওয়ায় লোকসান গুনছে কৃষক। তার উপর সংরক্ষিত আলু পঁচে যাওয়ায় চাষীরা এখন দিশেহারা হয়ে পড়েছেন। অন্যদিকে পঁচন ধরা আলু আলাদা করতে কোল্ড স্টোরেজের ভেরত-বাইরে বেশ জোরেশোরে বাছাই কাজ চলছে।

পঁচন আলু আলাদা করতে এখন ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন শ্রমিকরা। পঁচে যাওয়া ওই ৪২ হাজার বস্তা আলু পর্যায়ক্রমে ফেলে দেয়া হচ্ছে পানিতে।

গত দুই সপ্তাহের ব্যবধানে হাজার হাজার বস্তা আলু পচে যায় বলে কোল্ড ষ্টোরেজ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে। একো হিমাগারের ম্যানেজার পলাশ আহমেদ বলেন, বিদ্যুতের অভাব ও জেনারেটর না থাকায় কোল্ড স্টোরেজ ঠান্ডা রাখা যায়নি। তবে এ জন্য তিনি বিদ্যুত সরবরাহকেই দায়ী করেছেন।

[ad#co-1]