মুন্সীগঞ্জে প্রতিপক্ষের আগুনে বসতঘর পুড়ে ছাই

মুন্সীগঞ্জ শহরের হাটলক্ষ্মীগঞ্জ এলাকায় গতকাল শুক্রবার বেলা ১২টার দিকে প্রতিপক্ষের দেয়া আগুনে একটি বসতঘর পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। অল্পতে আগুন থেকে রক্ষা পেয়েছে একটি অটো রাইসমিল ও ময়দার ফ্যাক্টরিসহ অসংখ্য বসতঘর। জমিসংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে ধলু সরদারের মেয়ে রেশমার ভাড়াটিয়ার রান্নাঘরে আগুন দেয় প্রতিপক্ষ। ভাড়াটিয়ারা জানান, কে বা কারা আগুন লাগিয়েছে তা দেখেননি তারা। তবে বাইরে থেকেই আগুন লাগানো হয়েছে বলে দাবি করেছেন ভুক্তভোগী রেশমা।

শহরের হাটলক্ষ্মীগঞ্জ এলাকায় বাদশা মিয়া ও রেশমা বেগমের মধ্যে জমিসংক্রান্ত বিরোধ চলছিল বলে মুন্সীগঞ্জ সদর থানার অফিসার্স ইনচার্জ শহীদুল ইসলাম জানিয়েছেন। ওই বিরোধের জের ধরে গত বুধবার দুপুরে দুপক্ষের মধ্যে মারামারিতে একদিকে বাদশার স্ত্রী-ছেলে সামান্য আহত হলেও রেশমার মা-বোন গুরুতর আহত হন। রেশমার মা ইয়ারুন্নেসা (৫০) ও বোন নাজমা বেগমের (১৮) শারীরিক অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাদের মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। মা-বোন আহত অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকায় বাড়িতে ভাড়াটিয়ারা ছাড়া আর কেউ ছিল না। এই সুযোগে বাড়িঘরে নাশকতা ঘটাতে ওই আগুন দেয়া হয় বলে দাবি রেশমা বেগমের। আগুনে ভীতসন্ত্রস্ত হয়ে পড়েন এলাকাবাসী ও পাশের অটো রাইসমিল ও ময়দা ফ্যাক্টরির মালিক-শ্রমিকরা। তারা তাৎক্ষণিক ফায়ার সার্ভিসে খবর দিলে দমকল বাহিনী এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। এতে পাশের ফ্যাক্টরি ও অটো রাইসমিল আগুন থেকে রক্ষা পেয়েছে।

[ad#co-1]