মুন্সিগঞ্জে বিচার প্রার্থীর আত্মহত্যার চেষ্টা

আদলত ভবনের ৩য় তলা থেকে লাফিয়ে পড়ে
রবিবার (বিকাল সোয়া ৫ টায়) আদালত ভবনের ৩য় তলা থেকে লাফিয়ে পড়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন বিচার প্রার্থী মৌসুমী আক্তার (২০)। তাকে মুমূর্ষু অবস্থায় মুন্সিগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সে ঢাকার কামরাঙ্গীর চরের আব্দুল জলিলের কন্যা । সদর থানার ওসি শহিদুল ইসলাম জানান, প্রতারনার শিকার হয়ে মুন্সিগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলার নিমতলা গ্রামের আব্দুল লতিফের পুত্র তানভির রহমান হামিদকে বিয়ে করে। হামিদের ৩য় স্ত্রী মৌসুমী ঢাকার আদালতে স্বামীর বিরুদ্ধে নারী নির্যাতন মামলা করলে গ্রেফতারী পরোয়ারনা জারি হয় এবং ১৫ সেপ্টেম্বর হামিদ গ্রেফতার হয়ে মুন্সিগঞ্জ জেল হাজতে রয়েছে।

রবিবার এই মামলার কাজেই মুন্সিগঞ্জ আদালতে আসেন। এক পর্য়ায়ে আদালতের ৩য় তলার রেলিংয়ে দাড়িয়ে লাফিয়ে পড়ে। রাত ৭টায় জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার ডা.এহসানুল করিম জানিয়েছেন, এখনও মৌসুমীর জ্ঞান ফিরেনি।

মোহাম্মদ সেলিম, মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধি। ০১৯১১১৪২৬৭০
২৬.০৯.১০
বিক্রমপুর সংবাদ
————————————————

মুন্সীগঞ্জে জজ আদালতের তিনতলা থেকে ঝাঁপ দিয়ে বাদীর আত্মহত্যার চেষ্টা

বিয়ে পাগল স্বামীর জামিন হওয়ার খবরে এক তরুণী-গৃহবধূ রোববার বিকালে মুন্সীগঞ্জ জেলা জজ আদালতের তিনতলার বারান্দা থেকে ঝাঁপিয়ে পড়ে আত্মহত্যার চেষ্টা চালিয়েছে। গতকাল রোববার বিকাল ৫টার দিকে স্বামীর বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলার বাদী মৌসুমী (২০) আত্মহত্যার চেষ্টায় তিনতলা থেকে ঝাঁপিয়ে পড়ে। এতে তিনি আদালত প্রাঙ্গণের একটি আমগাছের ওপর গিয়ে পড়েন। আদালতের কর্মচারীরা মারাত্মক আহত অবস্থায় তাকে মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসেন। পরে তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় সেখানে ভর্তি করা হয়।

সিরাজদিখান থানার অফিসার্স ইনচার্জ মাহবুবুল আলম জানান, গৃহবধূ মৌসুমীর বাড়ি ঢাকার কামরাঙ্গীরচর এলাকায়। মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলার নীমতলী এলাকার আব্দুল লতিফের ছেলে তানভীর রহমান হামিদের সঙ্গে বেশ কিছুদিন আগে মৌসুমীর বিয়ে হয়। বিয়ের পর মৌসুমী জানতে পারে তার স্বামীর আগের একটি স্ত্রী রয়েছে। তাছাড়া সম্প্রতি স্ত্রীর অনুমতি ছাড়াই আরো একটি বিয়ে করেছে বিয়ে পাগল স্বামী তানভীর। এতে সম্প্রতি মৌসুমী বাদী হয়ে ঢাকার সিএমএম আদালতে স্বামীর বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করে। ওই মামলায় আদালত ওয়ারেন্ট জারি করলে সিরাজদিখান থানা পুলিশ গত ১৫ সেপ্টম্বর স্বামী তানভীরকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারের পর তাকে মুন্সীগঞ্জ জেলহাজতে পাঠানো হয়।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী মুন্সীগঞ্জ জজ আদালতের পিয়ন মো. জাহাঙ্গীর জানান, তিনতলার বারান্দার রেলিং পেরিয়ে হঠাৎ নিচে ঝাঁপিয়ে পড়ে সে। গতকাল বাদী মৌসুমী আদালতে এসে বিয়ে পাগল স্বামীর জামিনে মুক্ত হয়ে যাওয়ার গুজব খবর পেয়ে জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বারান্দা থেকে আত্মহত্যার উদ্দেশ্যে নিচে ঝাঁপ দেয়।

ডেসটিনি – ২৮-০৯-২০১০

[ad#co-1]